সাজগোজ

শীতে ত্বকের আদ্রতা রক্ষার্থে অ্যালোভেরা! 

শীতের রুক্ষতা কাটাতে ত্বকের যত্নে নানান প্রডাক্টস ব্যবহার করেও হয়তো কাঙ্ক্ষিত ফলাফল পাবেন না যা প্রাকৃতিক উপাদান ব্যবহার করে পাবেন। অ্যালোভেরায় আছে এমন সব গুনাগুন যা খেলে শরীরের অন্দরে যেমন উপকার হয় তেমনি ত্বকে ব্যবহার করলে ত্বকের বাইরেও এর অনেক উপকার পাওয়া যায়। অ্যালোভেরা শুধু ত্বকের উজ্জ্বলতা বৃদ্ধি করে না; সেই সঙ্গে নানা ধরনের স্কিন প্রবলেম কেও দূরে রাখে। এতে রয়েছে প্রচুর পরিমাণে ভিটামিন অ্যান্টি-অক্সিডেন্টল্যাকটিনমেনাস এবং পলিস্যাকারাই, যার ফলে ত্বকের যত্নে মারাত্মক ভাবে কাজ করে। আসুন জেনে নেই কিভাবে এই শীতে অ্যালোভেরা দিয়ে ত্বকের যত্ন নিবেন!  
 
 
 
 
অ্যালোভেরা ও নিম পাতা
 
 
শীতে ত্বক শুষ্ক হয়ে ফেটে যায়, যার ফলে ত্বকের প্রদাহ দেখা দেয়। ত্বকের শুষ্কতা দুর করে ত্বকের প্রদাহ কমিয়ে ত্বককে প্রাণোচ্ছল বানাতে অ্যালোভেরা ও নিম পাতা দিয়ে বানিয়ে ফেলুন একটি পেস্ট। সেজন্য ১ টেবিল চামচ অ্যালোভেরা জেল, ১ টেবিল চামচ নিম পাতা পেস্ট, ১ চা চামচ গোলাপ জল মিশিয়ে তরপর সেটি মুখে লাগিয়ে নিন। প্রসঙ্গত, যে কোনো ফেস মাস্ক লাগানোর পূর্বে ভাল করে মুখটা ধুয়ে নিয়ে ফেইস মাস্কটি লাগাবেন। তা না হলে কোন প্যাক ব্যবহার করে ভাল ফল পাবেন না। 
 
 

অ্যালোভেরা ও হলুদ 
 
অ্যালোভেরা ও হলুদ এই দুটি উপকরণ ত্বকের অ্যান্টি-সেপটিক বললে ভুল হবে না। হলুদে এমন কিছু উপাদান থাকে, যা ব্রণের প্রকোপ সহ ত্বকের অন্যান্য স্কিন প্রবলেম দূর করে। অপরদিকেঅ্যালোভেরা ত্বকের উজ্জ্বলতা বাড়ায়। তাই বানিয়ে ফেলুন ১ টেবিল চামচ অ্যালোভেরা জেল, ১/২ চা চামচ হলুদ ও ১ টেবিল চামচ দুধ। এরপর সম্পূর্ণ মুখে লাগিয়ে ১০ মিনিট রেখে ধুয়ে ফেলুন। দুধ, হলুদ এবং অ্যালোভেরা জেল মিশিয়ে বানানো এই ফেসপ্যাক টি উজ্জ্বল এবং নরম ত্বক পেতে আপনাকে সাহায্য করবে। আর কাঁচা দুধ ত্বকের পিএইচ লেভেল ঠিক রাখে।   
 
 
 

অ্যালোভেরা ও গোলাপজল 
 
শীতে শুষ্ক ত্বককে স্বাভাবিক করতে এই ফেস প্যাকটি দারুণ উপকারী। সেই সঙ্গে বলি রেখা, কালো ছোপ দূর করতেও গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখে। অ্যালোভেরা জেলের সঙ্গে কয়েক ড্রপ গোলাপ জল মিশিয়ে একটা পেস্ট বানিয়ে সেটি মুখে লাগিয়ে কিছুক্ষণ রেখে দিন। তারপর ঠান্ডা পানি দিয়ে ভাল করে ধুয়ে ফেলুন মুখটা। এটি আপনি ওভার নাইট ক্রিম হিসেবে ব্যবহার করতে পারেন। এতে আপনার ত্বকের আদ্রতা ফিরে পাবেন। সেই সাথে ত্বক হবে স্মুদ ও নরম। 
 
 
 
 
 
অ্যালোভেরা ও লেবু 
 
আপনার কম্বিনেশন স্কিন হলে এই ফেসপ্যাকটি আপনার জন্য একেবারে পারফেক্ট! কারণ অ্যালোভেরা অ্যান্টি-অক্সিডেন্টে পরিপূর্ণ আর লেবুতে আছে সাইট্রিক এসিড এবং ব্লিচিং এজেন্ট যা ত্বককে প্রাকৃতিক ভাবে ব্লিচ করে, এবং ব্রণ মুক্ত ও করে। এটি ত্বকের আদ্রতা ধরে রাখে ১ টেবিল চামচ অ্যালোভেরা জেল নিয়ে তাতে এক ড্রপ লেবুর রস দিয়ে ভাল করে মেশান। তারপর তা মুখে লাগিয়ে কমপক্ষে ১৫ মিনিট রেখে দিন। এরপর ঠান্ডা পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। 
 
 
 


অ্যালোভেরা ও মুলতানি মাটি 
 
মুলতানির মাটিতে এমন কিছু উপাদান রয়েছে যা প্রাকৃতিক ভাবে ত্বককে ভেতর থেকে উজ্জ্বল করতে সাহায্য করে। আর অ্যালোভেরা জেল আপনার ত্বককে করবে হাইড্রেটেড। ১ টেবিল চামচ মুলতানি মাটি, ১ টেবিল চামচ অ্যালোভেরা জেল এবং ১ চা চামচ গোলাপ জল নিয়ে ভালো করে মিশিয়ে নিন। এরপর সম্পূর্ণ মুখে লাগিয়ে রাখুন ১৫-২০ মিনিটের জন্য। এরপর শুকিয়ে গেলে ঠান্ডা পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। নিয়মিত ব্যবহার করে দেখুন রাতারাতি ফলাফল পাবেন। 
 
 
 
 
 


অ্যালোভেরা ও মধু 
 
মধু একটি প্রাকৃতিক ময়শ্চারাইজার হিসেবে পরিচিত। মধুতে এমন সব উপকরণ আছে যা ত্বককে ভেতর থেকে ময়শ্চারাইজ করে। এমনকি ত্বককে ক্লিন করে ভেতর থেকে। ১ টেবিল চামচ অ্যালোভেরা জেল ও ১ চা চামচ মধু একসঙ্গে ভালো করে মিশিয়ে নিন। তারপর সেই ফেসপ্যাক টি ধীরে ধীরে ম্যাসাজ করুন ত্বকে।  
 
 
 
তারকালয়/১৪/১২/১৮/রুপা 

Previous ArticleNext Article