Uncategorized, রেসিপি

দূপদের লোভনীয় খিচুরি রেসিপি

 

বৃষ্টি আর খিচুড়ি একে ওপরের সমার্থক শব্দ৷বাইরে মুষলধারে বৃষ্টি আর বাড়িতে বসে মাছ ভাজার সঙ্গে জমিয়ে খিচুড়ি খাওয়ার স্বাদ যে প্রায় অমৃত সমান, তা সব বাঙালিই জানে৷ তবে বঙ্গে এখনও জাঁকিয়ে বৃষ্টি না এলেও তাতে মন খারাপের কিছু নেই৷ আবহাওয়া দফতরের পূর্বাভাস বলছে আর কিছুদিনের মধ্যে বর্ষারানী আমাদের রাজ্যে প্রবেশ করতে চলেছেন৷ তাই বৃষ্টি  জন্য আপনাদের কথা ভেবে কয়েকরকমের খিচুড়ির রেসিপি রইল৷ সো এনজয় রেনি ডে উইথ খিচুড়ি৷

১: শাহি খিচুড়ি

 

কী কী উপকরণ লাগবে:

 

পোলাওয়ের চাল ( ৫০০ গ্রাম), মুগ ডাল (২৫০ গ্রাম) , আলু ২ টো ( ছোট টুকরো করে টাকা), পনির ( ১০০ গ্রাম), মটরশুঁটি (এক কাপ), ফুলকপি (১ কাপ, ছোট টুকরো করে কাটা), গাজর (১ কাপ টুকরা করা), টমেটো কুচি (১ কাপ), ঘি ২ টেবিল চামচ , কাজু বাদাম ১২-১৫টি, , কিশমিশ ২৫ গ্রাম,

আদা কুচি ১ টেবিল চামচ, হলুদ গুঁড়া ১ টেবিল চামচ, মরিচ গুঁড়া ১ টেবিল চামচ,গরম মসলা গুঁড়া ১ টেবিল চামচ, জিরা বাটা ১ টেবিল চামচ,

চিনি –লবণ স্বাদমতো, তেজপাতা ২টি, দারুচিনি/এলাচ ২টি করে, , কাঁচালঙ্কা ১০-১২টি,, ধনে পাতা কুচি ১ কাপ।

 

কীভাবে রান্না করবেন:

প্রথমে চাল ধুয়ে জল ঝরিয়ে রাখুন। এরপর একটি শুকনো কড়াইতে মুগ ডাল ভালো করে ভাজুন। ভাজা হয়ে গেলে জলে ধুয়ে জল ঝরিয়ে ফেলুন।

এবার সব সবজি চার কোনা করে কেটে নুন দিয়ে ওই ঘিতে ভেজে ফেলুন। এরপর যে পাত্রে খিচুড়ি বসাবেন তাতে ঘি দিয়ে গরম মসলাগুলো দিয়ে ভাজুন, এরপর তাতে চাল ও ডাল দিয়ে হলুদ ও মরিচ গুঁড়া, জিরা বাটা বা গুঁড়ো ও নুন দিয়ে ভাজুন। ভাজা হয়ে গেলে ফুটন্ত জলে দিয়ে সিদ্ধ হতে দিন। চাল, ডাল ফুটে উঠলে সবজিগুলো দিয়ে তার সঙ্গে চিনি, গরম মসলার গুঁড়া, কাঁচা মরিচ, কাজু বাদাম, কিশমিশ দিয়ে কিছুক্ষণ দমে রেখে রান্না করুন। শেষে খিচুড়ির ওপর ঘি ছড়িয়ে গরম গরম পরিবেশন করুন শাহি খিচুড়ি।

২:ভুনা খিচুড়ি

 

কী কী উপকরণ  লাগবে:

পোলাওয়ের চাল ১ কেজি, মুগডাল হালকা ভাজা (২ কাপ) , পেঁয়াজ কুচি (১ কাপ), আদা বাটা (১ টেবিল চামচ), রসুন কুচি (১ টেবিল চামচ), শুকনো মরিচ গুঁড়ো (২ চা চামচ), হলুদ গুঁড়ো (২ চা চামচ), দারুচিনি-এলাচ ২/৩ টুকরা করে, তেজপাতা ৩/৪টি, নুন ও তেল পরিমাণ মতো(তেলের পরিবর্তে ঘি দিতে পারেন)

 

কীভাবে রান্না করবেন:

চাল ভালো করে ধুয়ে জল ঝরিয়ে রাখুন। হাঁড়িতে তেল গরম হলে পেঁয়াজ, রসুন ভাজা হলে হলুদ বাদে সব মসলা দিয়ে দিন। এরপর ভালো করে নেড়ে ডাল ধুয়ে দিয়ে দিন। হলুদ গুঁড়ো, জল, লবণ দিয়ে নেড়ে ঢেকে দিন। চাল-ডাল সেদ্ধ হলে নামিয়ে নিন। নামানোর ৫ মিনিট আগে ওপরে ঘি দিয়ে ঢেকে রাখুন। এতে সুস্বাদু হবে এবং সুন্দর ঘ্রাণ বেরোবে। সবশেষে গরম গরম পরিবেশন করুন।

 

Tarokaloy 03/10/2020 Riya

Previous ArticleNext Article