সাজগোজ

যত্ন নিয়ে পা সাজান! 

যত্ন নিয়ে এবার পা সাজিয়ে নিন সুন্দর করে। পা সাজানোর ক্ষেত্রে ব্যবহার করতে পারেন ফ্রেঞ্চ পেডিকিউর স্টাইলে।ফ্রেঞ্চ পেডিকিউর এর সাথে যুক্ত করতে পারেন নেইল আর্ট। কয়েক রঙের নেইল পলিশ ব্যবহার করে করা যায় এই নেইল আর্ট। 
 
 
পায়ের যত্নে সর্বপ্রথম আসে পায়ের পরিচ্ছন্নতা। সব সময় পা পরিষ্কার রাখুন। প্রতিদিন গোসলের সময় অবশ্যই পা ভালো করে পরিষ্কার করা উচিত। সময় পাওয়া না গেলে রাতে ঘামানোর পূর্বে পা ভালো মত পরিষ্কার করে ভেসলিন লাগিয়ে রাখতে পারেন। সারাদিন পর বাহির থেকে এসে হালকা গরম একটু শ্যাম্পু করে পানিতে পা ভিজিয়ে ভালো করে পরিষ্কার করে নিতে পারেন। সেই সঙ্গে সপ্তাহে অন্তত একবার পেডিকিউর করতে পারেন। 
 
 

 

ফ্রেঞ্চ পেডিকিউর  
 
১. একটি মাঝারি গামলায় সহনীয় তাপমাত্রায় গরম পানিতে অল্প শ্যাম্পু গুলিয়ে ফেনা তুলতে হবে। সেই সঙ্গে লবেন দিতে পারেন এক চিমটি। এবার ১৫ মিনিটের মত পা ভিজিয়ে ঘষে নিন। পায়ের গোড়ালি ঘষার জন্য ব্যবহার করতে পারেন পিডমিস স্টোর অথবা ঝামা। পা ঘষে মরা চামড়া তুলে ফেলুন।  
 
 
২. নেইল কাটার দিয়ে শেপ করে নখ কাটুন। চারকোনা অথবা একটু গুলো করে শেপ দিতে পারেন নেইল ফাইলার দিয়ে। নখ কেটে নখে ক্রিম বা ভেসলিন দিয়ে নখের দুই পাশের কিউটিকেলস নরম করে নিন। এবার কিউটিকেল কাটার দিয়ে তা কেটে ফেলুন। 
 
 
৩. ফ্রেঞ্চ পেডিকিউরের মেইন কাজ হলো নেইল পলিশিং। নখের একদম সামনের দিকে একটা মোটা লাইন করে লাগিয়ে নিন সাদা রঙের নেইল পলিশ। শুকিয়ে গেলে আরেক কোট দিয়ে নিন। সামনের সাদা বর্ডার লাইন শুকিয়ে গেলে এবার আরেক কোট স্বচ্ছ ওয়াটার কালার নেইল পলিশ লাগিয়ে নিন। এর ওপর আপনি চাইলে দিতে পারেন গোলাপিপার্পেল বা ব্রাউন রঙের হালকা নেইল পলিশ। না দিলেও খারাপ লাগবেনা 
 
 
৪. এবার পুরো মা মুছে ময়শ্চারাইজার ক্রিম অথবা লোশন লাগিয়ে নিন। অনেক সময় নখে ও পায়ের চামড়ায় দাগ পরে যায় সেক্ষেত্রে লেবুর রস ঘষলেই দাগ সেরে যাবে। 
 
 
তারকালয়/১৭/১২/১৮/রুপা 

Previous ArticleNext Article