Uncategorized, সেলিব্রিটি বার্তা

“হাম দিল দে চুকে সনম নিয়ে নতুন” কাণ্ড

২২ বছর পূর্ণ করল সঞ্জয় লীলা ভান্সালী পরিচালিত জনপ্রিয় এবং তৎকালীন সময়ে থেকে শুরু করে এখন পর্যন্ত আলোচিত একটি চলচ্চিত্র ‘হম দিল দে চুকে সনম’। পেশাগত জীবনের গোড়ার দিকের সফল ছবিকে ঘিরে সুনাম অর্জন করেছে সালমান খান। গত শুক্রবার টুইটারে পরিচালকের সাথে একটি ছবি দিয়েছেন অভিনেতা। ছবিটি বেশ আগের মূলত সেই সময়ের একটি ছবি।

Tarokaloy_salman_khan_aishwarya_rai

ছবিতে দেখা যাচ্ছে হাস্য উজ্জ্বল সালমান সাথে সঞ্জয় লীলা ভান্সালী। ছবিটি দেয়ার পিছনে রয়েছে হাজর স্মৃতি ও তথ্য। ছবিটির ক্যাপশনে
সঙ্গে লিখেছেন, ‘হম দিল দে চুকে সনম ২২ বছর পার করে ফেলল।’ এই পোস্টে ছবির সহ অভিনেতা অজয় দেবগণ এবং সঞ্জয়ের প্রযোজনা সংস্থাকেও ট্যাগ করলেন সালমান। কিন্তু সবাই থাকলেও কেউ যেনো মিসিং। সেই কেউ তা আর কেউ নয় সেটি ছিল চলচ্চিত্রের একজন মুখ্য অংশ।

Tarokaloy_salman_khan_sanjay_lila_bhansali

এত দূর পর্যন্ত সবটাই ঠিকঠাক ছিল। কিন্তু ঠিক ছিল না চলচ্চিত্রে নায়িকার ভূমিকায় অভিনয় করা আসল চরিত্র ঐশ্বরিয়া রায়। পোস্টে ছবির নায়িকা ঐশ্বর্য রাই বচ্চনের উল্লেখ না থাকায় খটকা লাগে নেটাগরিকদের। ‘রাধে: ইয়োর মোস্ট ওয়ান্টেড ভাই’-এর পর সালমানের অতীতের প্রেমকে ট্রোলের নতুন মাধ্যম ধরে একের পর এক পর মন্তব্য করতে থাকে নেটাগরিকদের একাংশ। একজন লিখেছেন, ‘ঐশ্বর্যকে কেন ট্যাগ করেননি? ছবিতে তিনিও ছিলেন।’

Tarokaloy_sanjay_lila_bhansali_and_aishwarya

কেউ আবার অভিষেকের প্রসঙ্গে টেনে খোঁচা দিয়ে ‘ ভাইজান’-কে লিখেছেন, ‘ঐশ্বরিয়াকে ট্যাগ করলে জুনিয়র বচ্চন রেগে যাবেন।’ এক নেটাগরিকের লেখায় আফসোসের সুর, ‘ওঁদের দু’জনের সন্তান হলে তারা খুব সুন্দর হত। কিন্তু সব নষ্ট হয়ে গেল।’ এসব মিলে সব কিছু গোলমাল। সালমান ছবিটি তার ইনস্টাগ্রাম এবং টুইটার দুই অ্যাকাউন্ট এ পোস্ট করেছে গতকাল রাতে। এক দিনের মধ্যে আজ তার কমেন্ট সেকশন ২৬ হাজারের উপরে মন্তব্যের বাহার।

Tarokaloy_salman_khan_aishwarya_rai

ঐদিকে টুইটার ব্যবহার করেন না ঐশ্বরিয়া। তবে ইনস্টাগ্রামে ২২ ঘণ্টা আগে ‘হম দিল দে চুকে সনম’-এর সঙ্গে জড়িত কিছু মুহূর্তের ছবি দিয়েছিলেন তিনিও। সঞ্জয়ের সঙ্গে একাধিক ছবি থাকলেও, কাউকেই নিজের পোস্টে আলাদা ভাবে উল্লেখ করেননি অভিনেত্রী। সেখানে কমেন্টের বক্সে তেমন কিছু ছিল না।

ছবিতে শেষমেশ পূর্ণতা পায়নি সমীর (সালমান) এবং নন্দিনীর (ঐশ্বরিয়া) প্রেম। জীবনসঙ্গী হিসেবে বনরাজকে (অজয়) বেছে নিয়ে সমীরের থেকে দূরে সরে গিয়েছিল নন্দিনী। পর্দার এই গল্প খানিকটা মিলে যায় ঐশ্বর্য এবং সালমানের বাস্তবের জীবনের সঙ্গে। সে কথাও ট্রোল, মিমের আকারে সলমনকে মনে করিয়ে দিয়েছেন অনেকে।

Tarokaloy

Riya

Previous ArticleNext Article