Uncategorized, রেসিপি

রেসিপি : “মেজবানি মাংস “

মেজবানি মাংস নাম শুনলেই জিবে জল চলে আসে তাই না! খাবার টা আসলেই এত মজাদার যে খেয়েছে সে এখনি ভুলতে পারেনি। আর যে খায়নি সে আফসোস করছে। খাবার টা বাঙালির একটি ঐতিহাসিক খাবারের মধ্যে অন্যতম। এর প্রচলন ঘটেছে চট্টগ্রাম থেকে। সেখানকার মানুষ তাদের কোনো অনুষ্ঠান হোক অথবা কোনো স্পেশাল দিন এই খাবারটি তালিকায় রাখবেই রাখবে
রান্নায় যা লাগবে।

Tarokaloy_Recipe_mazban

গরুর মাংসের একটি অন্যতম রেসিপি হচ্ছে মেজবান। বাহিরে গিয়ে খাওয়া অথবা রেস্টুরেন্ট গুলোতে খাওয়ার মধ্যে তেমন স্বাদ পাওয়া যায় না আবার স্বাস্থের জন্য কতোটা নিরাপদ সেটা একটু চিন্তার বিষয় ।কারণ এটি একটি ঘরোয়া রেসিপি তাই ঘরে বানিয়ে খাওয়া দরকার। কিন্তু রেসিপি কি জানা আছে? জানা না থাকলে এখনি জেনে নিন।

tarokaloy_mazban_recipe

মেজবান তৈরি করার উপায় এবং উপকরণ সমূহ

উপকরণঃ
১/গরুর মাংস: ২ কেজি,
২/ পেঁয়াজ কুচি: ১ কাপ,
৩/ রসুন বাটা: ১ টেবিল চামচ ৪/হলুদ ও মরিচগুঁড়া ১ টেবিল চামচ,
৫/ধনে ও জিরাগুঁড়া : ১ টেবিল চামচ,
৬/সরিষার তেল : ১ কাপ,
৭/মাংসের মসলা : ১ চা চামচ, ৮/টক দই ১ কাপ,
৯/কাঁচামরিচ : ১০-১২টি,
১০/গোলমরিচ : ১ চা চামচ,
১১/দারচিনি ও এলাচ : ৫-৬টি, ১২/ জায়ফল ও জয়ত্রী : আধা চা চামচ,
১২/মেথিগুঁড়া: ১ চা চামচ,
১৩/ লবণ স্বাদমতো

মেজবান তৈরি প্রস্তুত প্রণালী:

tarokaloy_mazban_recipe

মাংস ধুয়ে পানি ঝরিয়ে নিন। একটি পাত্রে মাংস, তেল, টক দই, হলুদ, মরিচ, আদা, রসুন, পেঁয়াজ, লবণ ও সব মসলা নিয়ে মেরিনেট করে রাখুন। অর্ধেক পেঁয়াজ তেলে ভেঁজে বেরেস্তা করে নিন। চুলায় হাঁড়ি বসিয়ে মেরিনেট করা মাংস কষাতে থাকুন। হাঁড়িতে ২ কাপ পরিমাণ পানি দিয়ে আরও কিছুক্ষণ কষাতে হবে। মাংস থেকে পানি ঝরে গেলে মৃদু আঁচে মাংস সিদ্ধ না হওয়া পর্যন্ত রান্না করুন।

মাংসের পানি শুকিয়ে এলে কাঁচামরিচ, ধনে, জিরাগুঁড়া দিয়ে মৃদু আঁচে ১০ মিনিট দমে রেখে নামিয়ে পেঁয়াজ বেরেস্তা দিয়ে গরম গরম পরিবেশন করুন সুস্বাদু গরুর মেজবানি মাংস। দেখলেন তো কত সহজে বানিয়ে নেয়া যায় মেজবান

Previous ArticleNext Article