Uncategorized, সেলিব্রিটি বার্তা

মুশকান জুবেরী চরিত্রটিকে জিতিয়ে দিয়েছেন এবং আমাকে গর্বিত করেছেন।’- সৃজিত

বাঁধনের প্রশংসায় মগ্ন সৃজিত।এক সাথে দেখা যাচ্ছে দার্জিলিং বরফের চূড়ায়। কিন্তু নেটিজনের ধারণা হয়তো মিথিলা আর সৃজিতের মাঝে আসছেন বাঁধন! আবারো নতুন ভাবে জড়িয়ে পড়ছেন বাঁধন আর সৃজিত! অনেক রকমের মন্তব্যের উদয় হচ্ছে তাদের এক সাথে দেখে। কিন্তু এক সাথে হওয়ার পিছনে রয়েছে একটি বিশেষ কারণ।

Tarokaloy_srjit_and_badhon

বাংলাদেশের লেখক মোহাম্মদ নাজিম উদ্দিনের উপন্যাস ‘রবীন্দ্রনাথ এখানে কখনও খেতে আসেননি’ অবলম্বনে কলকাতার পরিচালক সৃজিত মুখার্জি নির্মাণ করেছেন ওয়েব সিরিজ। এই ওয়েব সিরিজ নিয়ে চলছে অনেক আলোচনা ,সমালোচনা। সকলেই ভাবছিলেন এখানে থাকবে জয়া অথবা পরী! কিন্তু এদের বাদ দিয়ে নাম বসলো বাঁধনের।

Tarokaloy_srjit_and_badhon

এতে ‘মুশকান জুবেরী’ চরিত্রে অভিনয় করেছেন আজমেরী হক বাঁধন। তার অভিনয়ের প্রশংসা করেছেন ওপার বাংলার এই নির্মাতা।
সৃজিত জানিয়েছেন, শুটিংয়ের সময় বেশ কষ্ট করেছেন বাঁধন। যার ফলেই জুবেরী চরিত্রটি সার্থক হয়েছে। এবং নিজেকে মুশকানের চরিত্রে খুব সুন্দর করে নিজেকে বানিয়ে নিয়েছে বাঁধন।

Tarokaloy_badhon_hoque

বাঁধনের সাথে কাজ করার অভিজ্ঞতা সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে তুলে ধরে এই নির্মাতা লিখেছেন, ‘রবীন্দ্রনাথ এখানে কখনও খেতে আসেননি’র ডাবিং এবং ব্যাকগ্রাউন্ড মিউজিকের কাজ শেষ হলো অবশেষে,অনেকদিন যাবৎ এটা নিয়ে কাজ চলছিল,করোনা কারণে কিছুদিন সব কিছু স্থগিত ছিল।কিন্তু এটি কিছুর পরও কাজের জন্য আপনার আত্মত্যাগের প্রতি সম্মান জানাই বাঁধন। প্রতিকূল পরিস্থিতিতে শুটিং চালিয়ে যাওয়া, কাজ নিয়ে অসংখ্যবার প্রশ্ন তোলা, প্রচুর সময় চেয়ে নেওয়ার মাঝেও আপনি মুশকান জুবেরী চরিত্রটিকে জিতিয়ে দিয়েছেন এবং আমাকে গর্বিত করেছেন।’

Tarokaloy_srjit_and_badhon

ওটিটি প্ল্যাটফর্ম হইচই’র ওয়েব সিরিজ ‘রবীন্দ্রনাথ এখানে কখনও খেতে আসেননি’র শুটিং হয়েছে সিকিমের জিরো পয়েন্টে ও পশ্চিমবঙ্গের বর্ধমান-দুর্গাপুর এলাকায়। এর বিশেষ একটি চরিত্রে অভিনয় করছেন অঞ্জন দত্ত, থাকছেন রাহুল বোস, অনির্বাণ ভট্টাচার্যসহ আরও অনেকে। শিগগিরই এটি দেখা যাবে হইচইয়ে। খুব শীঘ্রই এই ওয়েব সিরিজটি রিলিজ করা হবে।

Tarokaloy_srjit_and_badhon

জানা গেলো কলকাতায় আছে সৃজিত,এবং বাংলাদেশে অবস্থান করছে মিথিলা। ভারতের অবস্থা অবনতির জন্য মিথিলা তার মেয়েকে নিয়ে বাংলাদেশেই থাকবে। ঠিক ততদিন আলাদা থাকতে হচ্ছে এই দম্পতিকে।

Previous ArticleNext Article