Uncategorized, সাজগোজ

নাকের দুই পাশের দাগ দূর করার ঘরোয়া টিপস

মুখের সুন্দর্যের আর একটি বিশেষ দিক হলো দাগ মুক্ত স্কিন।দাগ থাকলে তো নিজের কাছেই নিজেকে ভালো লাগবে না। আর পাশ থেকে কমেন্ট যেনো নিয়ার মতই না। সে জন্য আমাদের করতে হবে কিছু করনীয় কাজ।একটু চেষ্ঠা করলেই এসব দাগ দুর করা যায়। যেকোনো ফল পাওয়ার জন্য অবশ্যই চেষ্ঠা চালিয়ে যেতে হয়,আর ত্বক এমন একটা জিনিষ যেটার সাথে কোনো প্রকার কম্প্রমাইস করা ঠিক নয়।

যারা রেগুলার চশমা পড়ে থাকে, তাদের সবারই খুব কমন একটা জ্বালা হলো স্পট। নাকের দুপাশে কালো স্পট পড়ার ঝামেলা। আর সেটা এত এক রোখা যেতেই চায় না। আর কোনো কিছু দিয়ে ঢেকে রাখা তো সম্ভব ই না।

আমরা অনেকেই চাই যত দ্রুত সম্ভব যেনো দাগ দূর হয়,সে জন্য আমরা না বুঝে কেমিক্যাল জাতীয় পণ্য দিকে ঝুঁকে পরি যেটা কতোটা নিরাপদ টা না জেনে ,সে জন্য আমাদের করণীয় হচ্ছে ঘরোয়া কিছু টোটকা উপর নজর দেয়া চুলুন দেখে নেই তাহলে কি কি উপাদান কিভাবে ব্যবহার করা উচিত।

আলু, ও টমেটো
আপনারা কি জানেন চোখের চারপাশের কালো দাগ দূর করতে আলু, শসা, টম্যাটোর রস কতোটা উপকারি?শুধু তাই নয় নাকের পাশের চশমার দাগ দূর করতেও এগুলি সমান কাজ করে।

তাহলে দেরি না করে এখনি
২চামচ আলুর রস বা শসার রস বা টম্যাটোর রস একটি কটন প্যাড ই নিয়ে নাকের চার পাশে অ্যাপ্লাই করুন এবং ১০ মিনিট রেখে দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। সপ্তাহে অন্তত ৪দিন ব্যাবহার করার পর আপনি নিজেই বুঝতে পারবেন।

অ্যালোভেরা জেল:
অ্যালোভেরা জেলে আছে প্রচুর পরিমাণ ভিটামিন এ, সি ও ই যা মুখের দাগ দূর করার জন্য যথেষ্ট। সে সাথে নাকের আসে পাশে চশমার কিংবা অন্যান্য দাগ সরাতেও দারুন কাজ করে

একটি রও অ্যালোভেরা জেল নাকের দাগের উপর হালকা হাতে রাব করে ১০-১২ মিনিট জন্য রেখে দিয়ে ঠাণ্ডা পানি দিয়ে ধুয়ে নিন। চাইলে প্রতিদিন এটা অ্যাপ্লাই করতে পারবেন দ্রুত ফলাফল পাওয়ার জন্য।

পাতিলেবু
আমরা জানি পাতিলেবু মুখের যেকোনো দাগ দূর করতে সক্ষম। তাই নাকের দাগের জন্য বিফল হবে না, সেটা বলার অপেক্ষা রাখেনা। কারণ লেবুর রসে থাকে প্রচুর ভিটামিন সি ও সাইট্রিক অ্যাসিড। যা মুখের যেকোনো দাগ নিমেষেই সরিয়ে দেয়।

২চামচ পাতিলেবুর রস ও পরিষ্কার তুলো নিয়ে তা দাগের পুরো মুখে এবং দাগের জায়গাতে লাগিয়ে রাখুন ৫ মিনিট জন্য,তার পর ঠাণ্ডা পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন।

গোলাপজল নিশ্চয়ই ব্যবহার করেন। মেকআপ তুলতে বা রোজকার ত্বকের যত্নে। তাহলে গোলাপজলকেই কাজে লাগান এই সমস্যায়। গোলাপজলে রয়েছে অ্যান্টি-ইনফ্লেমেটরি উপাদান। যা এই দাগ দূর করার পাশাপাশি চোখকে একটা ফ্রেশ অনুভূতি দেয়। এবং আপনার চোখের তোলা যদি ফোলা হয়, তাহলে সেই সমস্যায় ম্যাজিকের মত দূর করবে।

২চামচ গোলাপজল ও তুলো নিয়ে মুখে চেপে চেপে লাগিয়ে রাখুন ১০ মিনিটের জন্য।তারপর পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন

গ্রীন টি ব্যাগ:
গ্রীন টি এমন একটি উপাদান যেটা শুধু শরীর জন্য নয় ত্বকের জন্য জন্য অনেক বেশি উপকারী। আমরা সাধারণত গ্রীন টি টা পান করে টি ব্যাগটি ফেলে দেই। কিন্তু এই টি ব্যাগটি তে অবশিষ্ট আছে অনেক অ্যান্টি অক্সিজেন এবং মিনারেল ফাইবার যা ত্বকের উজ্জ্বলতা বৃদ্ধি সাথে দাগ দুর করার ক্যাপাবিলিটি।

১টি গ্রীন টি ব্যাগ হালকা কুসুম গরম পানিতে ভিজিয়ে নিয়ে ,সেটা দাগের জায়গা তে হালকা হতে লাগতে থাকুন।এভাবে ১০-১২ মিনিট রেখে মুখ ধুয়ে ফেলুন। আপনি প্রতিদিন এটা অ্যাপ্লাই করতে পারবেন নিশ্চিন্তে।

Previous ArticleNext Article