Uncategorized, রেসিপি

থাই ফ্রায়েড রাইস

থাই ফ্রাইড রাইস এমন একটা খাবার যা জিভে জল আনা মত অবস্থা। জনগনের সাথে শেয়ার না করা রীতিমত অপরাধ। তাছাড়াও এটি একটি এমন খাবার যাতে একই সাথে সুষম আহারের সব উপাদান মজুত। সেইজন্য এক পদেই আহার সমাপ্ত করতে চাইলে এবং বাড়ির পরিবারের সদস্যদের খুশি করতে চাইলে থাই ফ্রায়েড রাইস রান্না করে দেখতে পারেন। তাহলে চলুন দেরি না করে জেনে নেয়া যাক।

থাই ফ্রায়েড রাইস বানাতে বেশ কিছু উপকরণ জরুরী। আবার কিছু কিছু উপকরণ নিজে যোগ বা বিয়োগ করে দেখতে পারেন, তাতে প্রতিবার বেশ একটা নতুনত্ব আসবে।
আজকের রেসিপি তে চিংড়ি না দিয়ে শুধু ডিম আর মুরগি দিয়ে বানিয়ে নিয়ার প্রণালী শেয়ার করা হচ্ছে। মজার ব্যাপার হচ্ছে শুধু ডিম দিয়েও চমৎকার করে এই রেসিপিটি তৈরি করে নিয়া জানে। তাহলে উপকরণটি জানা যাক-


১)বাসমতী চাল – আধা কাপ। ২)মুরগি- কয়েকটি ছোট পিস টুকরো করে কাটা।
৩) কিনওয়া- আধা কাপ।
৪) গাজর- দুটো আস্ত, খোসা ছাড়িয়ে টুকরো করে কেটে নেওয়া।
৫) বিণস- ছোট ছোট করে কেটে নেওয়া।
৬) পেঁয়াজ- একটি কুঁচি করে নেওয়া।
৭) কাচা মরিচ- ইচ্ছেমত।
৮) আদা- সরু করে কেটে নেওয়া।
৯) রসুন- কুঁচি করে নেওয়া।১০) পেঁয়াজকলি- এক গোছা, সাদা আর সবুজ অংশটি আলাদা করে কুঁচি করে রাখবেন।
১১) ডিম- চারটে।
১২) চিয়া সিডস- এক চামচ। ১৩) হেম্প সিডস- এক চামচ। ১৪) সয়া সস- দুই বড় চামচ। ১৫) তিল- এক চামচ।
১৬) থাই রেড কারি পেষ্ট- বড় দুই চামচ।
১৭) গোলমরিচ- এক চামচ। ১৮) তিলের তেল- দুই চামচ। ১৯) ঘি- এক চামচ।
২০) দই- এক চামচ।
২১) কেশর- কয়েকটি।
২২) দাড়চিনি- একটি, দুটি ২৩) জিরে- এক চামচ।
২৪) লবণ- স্বাদ অনুযায়ী।
২৫) চিনি- এক চিমটে।
২৬) কাজু- কয়েকটি

প্রণালী

থাই ফ্রায়েড রাইস রান্না করার প্রক্রিয়া এক সাথে তিন জায়গায় শুরু করলে অনেক তাড়াতাড়ি রান্নাটি সেরে ফেলা যাবে।

প্রথমত রান্না শুরু করার আগে সব কিছু কেটে হাতের সামনে রাখুন। মুরগির টুকরোগুলি দই, লবণ, গোলমরিচ, থাই রেড কারি পেষ্ট দিয়ে ম্যারিনেট করে রাখুন এবারে যদি মাইক্রোওয়েভ থাকে তবে চাল আর কিনওয়া ধুয়ে, তাদের দ্বিগুণ পরিমাণ পানি মেপে নিন।

পানি দিগুন বলতে, এক কাপ বাসমতী চাল এবং কিনওয়াতে দুই কাপ পানি নিন। তাতে জিরে, লবণ, কেশর এবং ঘি দিয়ে মাইক্রোোয়েভে পনের মিনিট রান্না করুন। ভাত রান্নার পাত্র বড় না হলে পাঁচ মিনিট পাঁচ মিনিট করে একটু সময় নিয়ে রান্না করবেন

আর চুলায় বসালে এমন ভাবে পানি দিন যেন ঝরঝরে ভাত হয়। একই সাথে চুলায় দুটি রান্নার বাসন বসান। একটিতে এক চামচ তেল দিয়ে কাজু ভেজে তুলে রাখুন, তারপরে ডিম, মুরগি বা চিংড়ি ভাজুন। অল্প লবণ এবং গোলমরিচ দিন।

অন্যটিতে একচামচ তেল দিয়ে পেঁয়াজ, আদা, রসুন, মরিচ এবং বাকি সবজি মিনিট চারেক হাল্কা হাতে নাড়াতে থাকুন। সমস্ত বীজগুলি দিন। খুব বেশী ভেজে ফেলার আগে সয়া সস এবং থাই রেড় কারি পেষ্ট দিয়ে ভালো করে মেশান। চুলা থেকে সরিয়ে নিন। গাজর যেন শক্ত থাকে।

এবারের কাজ হল ভাত, সবজি এবং ডিম ও মুরগিকে সুন্দর করে মিশিয়ে ফেলা। বড় পাত্রে সব রান্না সামগ্রী একত্র করে ওপর দিয়ে ভাজা কাজু আর পেঁয়াজকলির সবুজ অংশ সাজিয়ে পরিবেশন করুন।

Previous ArticleNext Article