Uncategorized, সাজগোজ

ত্বকের যত্নে বেসন

যুগ যুগ ধরে আমরা জেনে আসছি যে ত্বকের পরিচর্যার জন্য বেসন কতোটা কার্যকরী। ত্বকের অনেক সমস্যার সমাধান অবশিষ্ট আছে বেসনে। ড্রায় স্কিন হোক বা ওয়েলি স্কিন অথবা হোক না কম্বিনেশন ত্বক-সব ধরণের ত্বকের জন্যই বেসন ভীষণ ভাবে উপকারী। যদিও খালি বেসন এ যথেষ্ট কাজ করে থাকে ,কিন্তু বেসনের সাথে যদি আরো কিছু উপকরণ মিশিয়ে নিয়া যায় তাহলে ফেসপ্যাকটি আরো বেশি কার্যকরী হয়ে উঠবে।তাহলে চলুন আজকে কিছু প্যাক তৈরি করার টিপস বলবো যা বানিয়ে লাগাতে পারেন।

tarokaloy_skin_care


এই সবকটি ফেসপ্যাকই খুব কার্যকারী। বিভিন্ন ত্বকের অসুবিধাকে এক নিমেষেই বেসন দূর করে দেয়। তাহলে আজ কয়েকটি বেসনের ফেস প্যাক বানানোর পদ্ধতি জেনে নেওয়া যাক যা আমাদের ত্বককে আরো সুন্দর এবং মসৃণ করে তোলে।

tarokaloy_skin_care

বেসন এবং দুধ অথবা টক দই:
অনেকের জন্যে তৈলাক্ত ত্বক একটি বড় সমস্যা।আর এই সমস্যা দূরীকরণ বেসনের এই ফেসপ্যাকটি বানিয়ে ব্যাবহার করার ত্বকের তৈলাক্ত ভাব কমায় এবং আমাদের ত্বককে ওয়েল ফ্রী এবং নমনীয় করে তোলে।
পদ্ধতি:
২ চামচ বেসনের সাথে ১ চামচ দুধ বা দই মিশিয়ে তার একটা মিশ্রণ তৈরি করতে হবে। তারপর সেই মিশ্রণটি ভালো করে মুখে লাগাতে হবে। তারপর ২০ মিনিটের মতো মিশ্রণটি মুখে লাগিয়ে রাখার পর ধুয়ে ফেলতে হবে। এই ফেসপ্যাক আমাদের মুখের তৈলাক্ত ভাব এবং ময়লা দূর করে।

tarokaloy_skin_care

বেসন এবং কমলা লেবুর রস:
সূর্যের বাগুনি রশ্মি আমাদের ত্বককে ট‍্যানের প্রবণতা বারিয়ে দেয়। ট‍্যানের সমস্যা থেকে বাঁচার জন্যও কিন্তু উপায় আছে
আজকে সেই ট্যান দুর করার একটি ছোট্ট টিপস জেনে নিন
পদ্ধতি:
২ চামচ লেবুর রস এবং ১ চামচ বেসন মিশিয়ে একটি মিশ্রণ তৈরি করতে হবে। এই মিশ্রণটি মুখে লাগাতে হবে ২০ মিনিট থেকে আধ ঘন্টার জন্য। তারপর ভালো করে মুখ ধুয়ে ফেলতে হবে। রুটিন মাফিক ব্যবহার করলে আপনার ফলাফল হাতের মুঠোয়।

tarokaloy_skin_care

বেসনের সাথে লেবুর রস এবং ধুধের সর:

২ চামচ বেসনের সাথে ১ চামচ দুধের সর এবং তার সাথে বেশ কয়েক চামচ লেবুর রস মিশিয়ে একটা প্যাক তৈরি করতে হবে। সেই মিশ্রণটি আমাদের মুখে লাগাতে হবে। তারপর মোটামুটি ১৫-২০ মিনিট রাখার পর ধুয়ে ফেলতে হবে। ধোয়ার সময় জল ব্যবহার করার আগে যদি টোনার বা গোলাপ জল ব্যবহার করা হয় মুখের থেকে প্রলেপটি তোলার জন্য তাহলে ফেসপ্যাকটি আরো কার্যকরী হবে। বেশ কয়েকদিন এই পদ্ধতিতে ফেসপ্যাকটি মুখে লাগালে আমাদের মুখ উজ্জ্বল দেখায়।

বেসনের সাথে মধু মেশানো ফেসপ্যাক 
শুষ্ক ত্বক একদমই পছন্দ না। বেসনের সাথে মধুর মিশ্রণ আমাদের মুখের ত্বকের শুষ্কতা দূর করে এবং তার ফলে সহজেই আমরা পেয়ে যেতে পারি নরম এবং নমনীয় ত্বক। বেসনের সাথে মধু মিশিয়ে একটা প্যাক বানিয়ে তা সারা মুখে লাগাতে হবে। তারপর মুখে ১৫ মিনিট লাগিয়ে রাখার পর ওই মিশ্রণটি মুখ থেকে ধুয়ে ফেলতে হবে।
তাহলে জেনে নিলেন যে বেসনের ফেসপ্যাক ত্বকে কত রকম ভাবে উপকার করতে পারে।

Previous ArticleNext Article