Uncategorized, সাজগোজ

গরমকালে স্ক্যাল্পের চুলকানি থেকে মুক্তি পাওয়ার ঘরোয়া উপায়।

গরমকালে ত্বকের নানারকম সমস্যার মত চুলেরও অনেক রকম সমস্যার সমুক্ষিন হতে হয় । গরমকালে আমাদের চুল প্রচন্ড পরিমাণে তৈলাক্ত হয়ে ওঠে আবার কখনো দেখা যায় চুল প্রচন্ড পরিমানে রুক্ষ হয়ে উঠেছে। স্ক্যাল্প তৈলাক্ত হয়ে উঠুক অথবা রুক্ষ দুটি ক্ষেত্রেই মাথার ত্বকে চুলকানি বা ইচিং জাতীয় সমস্যা তৈরি হয়।

tarokaloy_hair_care

স্ক্যাল্পে এই ইচিং হওয়া অতিরিক্ত পরিমাণে বেড়ে গেলে তখন ডাক্তারের পরামর্শ নিয়ে পারেন তবে প্রাথমিক পর্যায়ে ঘরোয়া কতগুলি উপায়ের সাহায্যেও স্ক্যাল্পের এই চুলকানির থেকে মুক্তি পাওয়া সম্ভব। চলুন জেনে নিই গরমকালে স্ক্যাল্পের চুলকানির থেকে মুক্তি পাওয়ার ঘরোয়া কতকগুলি উপায়।

তৈলাক্ত স্ক্যাল্পের চুলকানির থেকে মুক্তির উপায়-
১. অ্যাপেল সিডার ভিনেগার
ড্রপারে করে সরাসরি স্ক্যাল্পে ব্যবহার করুন । সপ্তাহে দুই থেকে তিন দিন ব্যাবহার করলে উপকার পাবেন। এক্ষেত্রে মাথায় রাখবেন স্ক্যাল্প যদি খুব বেশি তৈলাক্ত হয়,তাহলে পানি না মিশিয়ে সরাসরি অ্যাপেল সিডার ভিনেগার ব্যবহার করুন। আর যদি স্ক্যাল্প মোটামুটি তৈলাক্ত হয় তাহলে সমান অনুপাতে পানি আর অ্যাপেল সিডার ভিনেগার ব্যবহার করুন। এরফলে চুলের ত্বকের তৈলাক্ততা কমে আসবে আর ইচিং ও হবে না।

tarokaloy_hair_care

২. লেবুর রস
অত্যন্ত তৈলাক্ত স্ক্যাল্প হলে সপ্তাহে দুই থেকে তিন দিন স্ক্যালে লেবুর রস ব্যবহার করুন। স্ক্যাল্প মোটামুটি তৈলাক্ত হলে সপ্তাহে একদিন উপকার করলেই ফল পাবেন। লেবুর রস স্ক্যাল্পে ব্যবহারের ফলে তৈলাক্ত স্ক্যাল্প ও ইচিং এর হাত থেকে মুক্তি পাবেন।

৩. টি ট্রি ওয়েল
এটিও খুব ভালো অ্যান্টি ইচিং হিসেবে কাজ করে সাথে সাথে খুব ভালো অ্যান্টিসেপটিক হওয়ার কারণে যেকোনো ফাঙ্গাল ইনফেকশনকেও দূর করে। সপ্তাহে তিন থেকে চারদিন চুলের গোড়ায় তুলার সাহায্যে টি ট্রি অয়েল লাগিয়ে দিন। রাতে ঘুমানোর আগে দিয়ে পরদিন সকালে শ্যাম্পু করে নিন।

tarokaloy_hair_care

৪. চুল নিয়মিত পরিষ্কার
চুলা অপরিষ্কার অপরিচ্ছন্ন থাকলে তেল চিটচিটে ভাব আসে আর ইচিং হয়। তাই চুল নিয়মিত পরিষ্কার করতে হবে।চুলে প্রতিদিন চিরুনি বা হেয়ার ব্রাশ অভ্যাস করুন, যাতে চুলে কোনো জট বা অপরিচ্ছন্নতা না থাকে।

tarokaloy_hair_care

৫. তৈলাক্ত খাবার বর্জন
তৈলাক্ত খাবার খাওয়ার ফলে তৈলাক্ত স্ক্যাল্প হয় তাই তৈলাক্ত স্ক্যাল্পের থেকে মুক্তি পেতে হলে তৈলাক্ত খাবার খাওয়া কমিয়ে দিন।

৭.পানি পান
ত্বকের তৈলাক্ততা হোক অথবা চুলের সবক্ষেত্রেই প্রচুর পরিমাণে জল পান করা উচিত। কেউ যদি দিনে অন্তত তিন লিটার করে জল পান করেন তাহলে স্ক্যাল্প তৈলাক্ত হয় না।

Previous ArticleNext Article