Uncategorized, সেলিব্রিটি বার্তা

ইন্ডিয়ান আইডলের বিচারকের আসনে ছাড়লেন বিশাল

ইন্ডিয়া সবচেয়ে জনপ্রিয় সঙ্গীত শো ইন্ডিয়ান আইডল। কিন্তু ইন্ডিয়ান আইডল এখন থাকতে টপ আলোচনায়। কেননা বেশ কিছু দিন ধরেই সংবাদের শিরোনামে রয়েছে চলতি বছরের ইন্ডিয়ান আইডল – সিজন ১২। অনুষ্ঠানটি নিয়ে নাটকীয়তা শুরু কিশোর কুমারের স্পেশাল এপিসোড দিয়ে। অনেক ভক্তদের সঙ্গে কিশোর কুমারের ছেলে অমিত কুমারও মনে করেন কিংবদন্তিকে ভালোমতো ট্রিবিউট জানাতে পারেনি তারা।

Tarokaloy_indian_idol

শুধু তাই নয় এই অনুষ্ঠানটির অন্যতম বিচারক সুনিধি চৌহানের কাছ থেকে জানা যায় নানা রকম নাটকীয়তার আভাস ,বলছেন খোদ শিল্পী। এবার ইন্ডিয়ান আইডল আলোচনায় এসেছে আরেকজন বিচারক। তার কথা না বললেই নয়,কেননা তিনি ছিলেন একজন জনপ্রিয় বিচারক ইন্ডিয়ান আইডলের। কিন্তু অবশেষে তিনিও ছেড়ে দিলেন ইন্ডিয়ান আইডলের বিচারকের দায়িত্ব। তিনি হলেন বিশাল দাদলানি।

Tarokaloy_indian_idol

বিশাল দাদলানি সেই লকডাউনের শুরু থেকেই ইন্ডিয়ান আইডলের সাথে কাজ না করার কথা জানিয়ে আসছিলেন। কিন্তু কাজ না করার পিছনে কি রয়েছে অন্য কোনো তথ্য!! কি কারণে তিনি পরিত্যাগ করলেন তার ইন্ডিয়ান আইডলের বিচারকের পদ।সেই নিয়েই গুঞ্জন শোবিজ অঙ্গনে। আর সেই তথ্য বের হয়ে আসে,কেননা তিনি নিজেই এই কথা জানিয়েছেন।

Tarokaloy_indian_idol

তিনি বলেনঃ ভারতের দামানে শুটিং সেট হওয়ায় সেখানে প্রতিদিন যাওয়া আসাসহ নিজের পুরো পরিবারকে করোনা ঝুঁকির বাইরে রাখার জন্যই ইন্ডিয়ান আইডল থেকে সরে আসতে হয়। আমি চাইবো না আমার জন্য আমার পরিবারের সদস্যদের কোনো প্রকার দুশ্চিন্তার সমুক্ষীন হোক। কিন্তু এখানেই সমাপ্তি নয়,তিনি এই সাথে দিলেন আরেক রমরমা খবর ,খবরটি শুনে আতংকে পরে দর্শক এবং ইন্ডিয়ান আইডলের ভক্তরা।

Tarokaloy_indian_idol

কেননা সাক্ষাৎকারে বিশাল দাদলানি আরো জানিয়েছেন, অদূর ভবিষ্যতেও ইন্ডিয়ান আইডলে ফিরে আসার ইচ্ছা নেই আমার। তার মানে আর কোনোদিন তাকে দেখা যাবে না ইন্ডিয়ান আইডলের সেটে দেখা যাবে না বিচারকের আসনে। কিন্তু এত বড় সিদ্ধান্ত কেনো নিলেন সে প্রশ্নের উত্তর এখনও অজানা। এক কৌতূহল ছিঁড়ে গিয়েছে ভক্তদের মাঝে।
লকডাউন এখনো শেষ হয়নি। তবে এর মাঝেই ইন্ডিয়ান আইডল তাদের শুটিং কার্যক্রম মুম্বইতে চালিয়ে যাচ্ছে। এগুলো বিরক্তিকর। বলে আক্ষেপ করেন বিশাল।

Tarokaloy_indian_idol

এর আগে বিশালকে নিয়ে এই শোয়ের হোস্ট আদিত্য নারায়ণ আরেক বিবৃতিতে জানান, বিশাল গত বছরই লোনাভালাতে পুরো পরিবার নিয়ে চলে গেছে। সে এখন লোনাভালা থেকে দামানে আসতে চায় না। করোনার মধ্যে পুরো পরিবারকে বাড়তি সতর্কতার রাখতেই তার এই সিদ্ধান্ত। আমি অবশ্যই তার এই সিদ্ধান্তকে সম্মান জানাই।

Previous ArticleNext Article