Uncategorized, সাজগোজ

শীতে আপনার রূপচর্চার শ্রেষ্ঠ বন্ধু লেবু

প্রাকৃতিক ভাবেই লেবুতে ত্বকের জন্য উপকারী অনেক উপধান বিদ্যমান থাকে, বিশেষ করে শীতের দিনে ত্বক শুকিয়ে যাওয়া,পা ফাটা, চুলের খুশকি এসব সমস্যার জন্য লেবু ব্যবহারে অভাবনীয় ফলাফল পাওয়া যায়।

১. খুশকি থেকে বাঁচতে লেবুর রস :

আমরা অনেকেই জানি যে লেবুতে এসিড থাকে এই এসিড মাথার ত্বকের পিএইচ নিয়ন্ত্রণে কাজ করে যার ফলে খুশকি মুক্ত থাকা যায়।মাথার ত্বকে সরাসরি লেবু ঘষতে পারেন কয়েক মিনিট তারপর পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলবেন।২ চা চামচ লেবুর রসের সাথে ২ কাপ পানি ভালভাবে মিশিয়ে নিন তারপর চুলে শ্যাম্পু করার পর ব্যবহার করুন। নিয়মিত ব্যবহারে ভাল সুফল পাবেন

২. ঠোঁট ও নখের যত্নে লেবুর রস

শীতকালে অনেকেরই ঠোঁট ও নখ শুকিয়ে যায় যেটা খুবই বিরক্তিকর চাইলে লেবু ব্যবহার করে এর থেকে মুক্তি পেতে পারেন। সরাসরি ঠোঁটে কয়েক ফোঁটা লেবুর রস ব্যবহার করে ঠোঁটের শুষ্কতা দূর করাতে পারেন।  হালকা গরম পানিতে কয়েক ফোঁটা লেবুর রস দিয়ে তাতে হাত ও পায়ের নখ ভিজিয়ে রাখতে পারেন এতে নখ শুষ্ক হওয়া থেকে বাঁচতে পারবেন।

৩. অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট হিসেবে লেবুর ব্যবহার

লেবুতে প্রচুর লবণ ও মিনারেল থাকে যা আপনার ক্লান্তি দূর করতে কাজ করে। লেবু আপনার শরীরের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বৃদ্ধিতে সাহায্য করে। সুতরাং শীতের দিনে বিভিন্ন রোগ সংক্রামণ থেকে বাঁচতে প্রতিদিন কয়েক ফোঁটা লেবুর রস হালকা গরম পানিতে মিশিয়ে পান করতে পারেন তাছাড়া লেবুর চাও পান করতে পারেন।

৪. হাত পায়ের যত্নে লেবুর ব্যবহার

আমরা অনেকেই নিয়মিত মুখের ত্বকের পরিচর্যা করলেও হাত পায়ের কথা একদমই ভুলে যাই। শীতের দিনে হাত পায়ের জন্য বিশেষ পরিচর্যার দরকার হয় লেবুর সাথে মধু ও চিনি মিশিয়ে হাত ও পায়ে ব্যবহার করা যেতে পারে এতে হাত ও পায়ের ত্বক সতেজ ও সুস্থ থাকে।মুখে সরাসরি লেবু ব্যবহার থেকে বিরত থাকুন কারণ লেবুতে প্রচুর এসিড থাকে।

৫. লেবু ব্যবহার করে পা ফাটাকে চিরতরে বিদায় জানান :

পা ফাটা থেকে বাঁচতে হালকা গরম পানিতে কয়েক ফোটা লেবুর রস দিয়ে তাতে পায়ের পাতা আধা ঘণ্টার মত ঢুবিয়ে রাখুন ফলাফল দেখে নিজেই অবাক হয়ে যাবেন। শীতে আমরা সবসময় জুতা মৌজা পরে থাকি সুতরাং এই সময়ে যদি প্রতিদিন গোসলের আগে এভাবে পায়ের পাতা লেবুর পানিতে ভিজিয়ে রাখেন তাহলে পায়ের পাতা আরও আকর্ষণীয় ও সুন্দর হয়ে উঠবে।

Previous ArticleNext Article