সাজগোজ

ত্বক ফর্সাকারি ঘরোয়া ন্যাচারাল নাইট ক্রিম? 

ত্বকের যত্নে আমরা কত কিছুই না ব্যবহার করে থাকি। বিশেষ করে ত্বকের সৌন্দর্য রক্ষার্থে নানা ময়শ্চারাইজিং ক্রিম অথবা ফেয়ারনেস ক্রিম ব্যবহার করি। দিনের ও রাতের বেলা আলাদা ক্রিম ব্যবহার করা ভালো। কেননা রাতের ক্রিমে এমন কিছু উপাদান দেয়া থাকে যা সারারাত ত্বকের পুষ্টি যোগায়। আমরা বেশিরভাগ নাইট ক্রিম ফেয়ারনেস এর জন্য ব্যবহার করে থাকি। সেক্ষেত্রে আপনি যদি ঘরে বসেই নিজেই নিজের জন্য নাইট ক্রিম বানিয়ে ফেলেন তো ক্ষতি কিসে। আজ আপনাদের জন্য নিয়ে আসলাম কিভাবে ঘরে বসেই নাইট ক্রিম ব্যবহার বানাতে পারবেন। 
 
 

 

যা যা লাগবে 

  • কাঠবাদাম ১০-১৫টি  
  • ১ কাপ দুধ   
  • ১ টেবিল চামচ গোলাপ জল 
  •  কাপ টক দই  
  • ১ টেবিল চামচ মধু 
  • ১ চা চামচ কমলার রস 
  • ৪-৫ টি দানা জাফরান 
  • ১ টা ভিটামিন সি ট্যাবলেট  
  • ১ টা ভিটামিন ই ক্যাপসুল 
  • ছোট কোটা 

 

প্রণালী : 
 

  • কাঠবাদাম গুলোকে সারা রাত দুধে ভিজিয়ে রাখুন। 
  • পরের দিন সকালে বাদামগুলোকে ব্লেন্ডারে ব্লেন্ড বা শিল পাটায় বেটে নিন, খুব মিহি পেস্ট হতে হবে। 
  • এরপর জাফরানের আলাদা ভাবে পেস্ট তৈরি করে বাদামের পেস্টে মিশিয়ে নিন। 
  • এবার একটি পরিষ্কার বাটিতে বাকি সব উপকরণ যেমন টকদই, মধু, কমলা লেবুর রস আর পেস্ট গুলো মিশিয়ে নিন।
  • এরপর ভিটামিন সি ট্যাবলেট টি গুঁড়ো করে নিন এবং ভিটামিন ই ক্যাপসুলটি ফুটো করে ভেতর থেকে তেল বের করে নিন। 
  • এবার সবগুলো উপকরণ ভালো ভাবে মিশিয়ে যে পাত্রে সংগ্রহ করতে চান সেটাতে রেখে দিন ছোট কোটায় বাতাস যেন না প্রবেশ করে এমন দেখে নিন। 
  • পাত্রটিকে প্রথমে ২৪ ঘণ্টা ডিপ ফ্রিজে এবং তারপর নরমাল ফ্রিজে রাখুন। 
  • এবার প্রতিদিন রাতে ফেস ওয়াশ দিয়ে মুখ ভালো ভাবে পরিষ্কার করে ব্যবহার করুন নিজের তৈরি করা নাইট ক্রীম 

 
 
এই ক্রিমের বিশেষত্ব হলো এই ক্রিমে বাজারে পাওয়া যায় ফেয়ারনেস ক্রিমের মত ক্ষতিকারক উপাদান নেই। প্রাকৃতিক উপাদান দিয়ে এই ক্রিম নিয়মিত টানা দুই সপ্তাহ ব্যবহারের মাধ্যমে আপনি আপনি পেয়ে যাবেন উজ্জ্বল ও মসৃণ ত্বক। এমনকি এটি আপনার ত্বকের রোদে পোড়া দাগ সারিয়ে তুলবে। আপনি নিজেই নিজের ত্বকের প্রেমে পড়ে যাবেন। 
 


তারকালয়/০৪/১১/১৮/রুপা 

Previous ArticleNext Article