সাজগোজ

পাতলা চুল ঘন করার ৫টি কার্যকর উপায়

 

চুল অতিরিক্ত পাতলা হলে সেটি যতই সিল্কি বা মসৃণ হক টা কিন্তু মোটেও ভালো দেখাবে না ,আর চুল ঘন কালো ঝলমলে হচ্ছে চুলের আসল সুন্দর্যের। আর সুন্দর চুল কোন মানুষই না চায়।কিন্তু আমাদের দেশের আবহাওয়া কারণে চুলের সুন্দর্যের পরিমাণ দিন দিন ক্রমশ হ্রাস পাচ্ছে।

 

সে জন্য উচিত চুলের জন্য সঠিক পদ্ধতিতে যত্নবান হওয়া,আর চুলের যত্নের জন্য যদি বাহিরের কেমিকাল জাতীয় পণ্য চুলের জন্য ব্যবহার উপযোগী না মনে হয় তাহলে সে ক্ষেত্রে আপনি চাইলে ঘরোয়া উপায়ে চুলের যত্ন নিতে পারেন কারণ প্রকৃতি জিনিসের উপর কোনো উপযোগী এবং কার্যকারী উপায় নাই।তাই আজকের নিয়ে এসেছি কিভাবে প্রাকৃতিক জিনিস ব্যবহার করে চুলের শুন্দর্য বৃদ্ধিতে কাজে লাগাতে পারেন।

 

তাহলে জেনে নেয়া যাক কিভাবে ঘরে বসেই পাতলা_চুল_ঘন_করার_৫টি_কার্যকর_উপায়।

tarokaloy_aloevera_for_hair_care

১. অ্যালোভেরা বা ঘৃতকুমারী

অ্যালোভেরা বা ঘৃতকুমারী দিয়ে পাতলা চুল ঘন করা যায়  -পাতলা চুল ঘন করা যায় ঘৃতকুমারীর সঠিক ব্যবহার করার মাধ্যমে। এর জন্য একটি অ্যালোভেরা পাতা থেকে চামচ বা ছুড়ির সাহায্যে এর জেলটি বের করে নিন। জেল-টাকে মসৃণভাবে পেস্ট করে নিন। এবার মাথার স্ক্যাপ্ল-এ ভালো করে ঘষে ঘষে লাগিয়ে রাখুন প্রায় ১০-১৫ মিনিট। তারপর ঠাণ্ডা পানি দিয়ে চুল ধুয়ে ফেলুন। এভাবে প্রতি সপ্তাহে ২ বার ইউজ করতে পারেন। অ্যালোভেরা স্ক্যাপ্ল-এর মৃত কোষ মেরামত করে চুলের গোড়া মজবুত করে এবং চুলের বৃদ্ধিতে সহায়তা করে। এটি চুলে ভলিউম এনে দেয়।

tarokaloy_egg_for_hair_care

 

২. ডিম

ডিম দিয়ে পাতলা চুল ঘন করা যায় – একটি বাটিতে একটি ডিম ভেঙে নিন। এবার এর সাথে যোগ করুন ১ টেবিল চামচ অলিভ অয়েল। এই দুটি উপকরণ ভালোভাবে মিশিয়ে চুলের গোড়া থেকে আগা পর্যন্ত লাগিয়ে নিন। এবার একটি শাওয়ার ক্যাপ দিয়ে চুল ঢেকে রাখুন ৩০-৪০ মিনিটের জন্য। তারপর শ্যাম্পু করে কন্ডিশনার দিয়ে ভালো ভাবে ধুয়ে ফেলুন। প্যাক-টি সপ্তাহে ১-২ বার ব্যবহার করুন। ডিমে আছে প্রোটিন এবং সালফার যা চুলকে ভেতর থেকে মজবুত করে এবং চুলের ঘনত্ব বৃদ্ধি করার পাশাপাশি চুলকে করে তোলে ঝলমলে ও সিল্কি। আর ডিমের সাথে থাকা অলিভ অয়েল ও চুল ঘন ও সিল্কি করতে বিশেষভাবে কার্যকরী।

tarokaloy_amla_for_hair_care

৩. আমলকী

পাতলা চুল ঘন করতে আমলকী –  ১ টেবিল চামচ আমলকী গুঁড়ার সাথে ১ টেবিল চামচ লেবুর রস মিশিয়ে নিন। এবার এটি চুলের গোড়ায় ভালো করে লাগিয়ে ৩০-৪০ মিনিট অপেক্ষা করুন। তারপর শ্যাম্পু করে নিন এবং নরমাল পানি দিয়ে চুল ধুয়ে ফেলুন। এই প্যাক-টি সপ্তাহে ১-২ বার ব্যবহার করতে পারেন। আমলকীতে আছে প্রচুর অ্যান্টি-অক্সিডেন্টস এবং ভিটামিন সি যা চুলের স্বাস্থ্য সুন্দর রাখে এবং চুলের গোড়ায় কোলাজেন-এর মাত্রা বৃদ্ধি করে চুল বৃদ্ধিতে ভূমিকা রাখে। লেবুর রস চুলের খুসকি দূর করে এবং আমলকী গুঁড়ার সাথে যুক্ত হয়ে চুলের বৃদ্ধি ঘটাতে সাহায্য করে।

tarokaloy_methiseed_for_hair_care

৪. মেথি

পাতলা চুল ঘন করতে মেথি -পাতলা চুল ঘন করা যায় মেথি ব্যবহারেও। কিভাবে? ২ টেবিল চামচ মেথি সারারাত পানিতে ভিজিয়ে রাখুন। পরের দিন ভিজিয়ে রাখা মেথি দানা ছেঁকে নিয়ে এর সাথে হাফ কাপ পরিষ্কার পানি যোগ করে ব্লেন্ডার-এ মসৃণভাবে ব্লেন্ড করে নিন। এবার এই পেস্ট-টি চুলের গোড়ায় লাগিয়ে রাখুন ৩০ মিনিট। তারপর শ্যাম্পু এবং কন্ডিশনার দিয়ে ভালোভাবে চুল ধুয়ে নিন। এবং এটি সপ্তাহে ১ বার করে করবেন।

 

উপরোক্ত উপায় গুলোর যথারীতি অনুসরণ করেই আপনি পারবেন চুলকে সুন্দর করে তুলতে এর সাথে সাথে পাতলা চুলের ঘনত্ব বাড়াতে কাজ করবে

Previous ArticleNext Article