সেলিব্রিটি বার্তা

আয়মান সাদিক-দেশসেরা তরুনের অনুপ্রেরনার গল্প

আয়মান সাদিক একজন বাংলাদেশী শিক্ষা উদ্যোক্তা এবং ইন্টারনেট ব্যক্তিত্ব যাকে এক নামে সবাই চেনে।তাকে বলা হয় ডিজিটাল আলোকবর্তিকা। আয়মান সাদিক কুমিল্লার মুসলিম পরিবারে ২ সেপ্টেম্বর ১৯৯২ জন্ম গ্রহন করেন। । তাঁর পিতা ব্রিগেডিয়ার জেনারেল তায়েব বাংলাদেশ ইউনিভার্সিটি অব প্রফেশনালস-এর প্রধান আর্থিক কর্মকর্তা এবং তাঁর মাতা শারমিন আক্তার এ একজন গৃহিণী। আয়মান চট্টগ্রামের ক্যান্টনমেন্ট স্কুল এণ্ড কলেজে অধ্যয়ন করেছেন। তিনি উচ্চমাধ্যমিকে অধ্যয়ন করেছেন আদমজী ক্যান্টনমেন্ট পাবলিক স্কুল এণ্ড কলেজে। আয়মান ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের আইবিএ (ইনস্টিটিউট অব বিজনেস এডমিনিস্ট্রেশন) থেকে ব্যবসায় প্রশাসনে স্নাতক সম্পন্ন করেন।

তিনি ২০১৫ সালের মার্চ মাসে ১০ মিনিট স্কুল প্রতিষ্ঠা করেন। এটা এমন এক প্রতিষ্ঠান; যা অনলাইনে শিক্ষা বিষয়ক বিভিন্ন তথ্য এবং সহযোগীতা বিনামুল্যে দিয়ে থাকে।এই প্রতিষ্ঠান শ্রোতাদের (যারা এখান থেকে শিক্ষা গ্রহণ করে) জন্য দুই সহস্রাধিক ভিডিও তৈরী করেছে।এই প্রতিষ্ঠান মূলত প্রাথমিক, মাধ্যমিক, উচ্চ মাধ্যমিক ও ভর্তি পরীক্ষার যা একাডেমিক সিলেবাসের আওতাভুক্ত এবং বিভিন্ন বিষয়ের উপর দক্ষতা কিভাবে বাড়ানো যায়; তা নিয়ে ভিডিও তৈরী করে।১০ মিনিট স্কুল হচ্ছে একটি শিক্ষামূলক সংগঠন যা শিক্ষা উদ্যোক্তা আয়মান সাদিক প্রতিষ্ঠা করেন।একে সহায়তা করেছিল বাংলাদেশী মোবাইল অপারেটর রবি।লক্ষ্য ছিল এমন একটি স্থান তৈরী করা; যেখান থেকে মানুষ চাইলে শিক্ষিত হয়ে উঠবে। এই প্রতিষ্ঠান ইউটিউব এবং ফেসবুকে সংক্ষিপ্ত লেকচারসমৃদ্ধ ভিডিও তৈরী করে থাকে।এই প্রতিষ্ঠান অনুশীলনের জন্য বিভিন্ন ভিডিও নির্মাণ করে। মুলত এই ওয়েবসাইট বা সংগঠনটি বাংলায় ভিডিওচিত্র নির্মাণ করে থাকে।

 

১০ মিনিট স্কুল যে সব কার্যক্রম পরিচালনা করে:

**গণিত, বিজ্ঞান, ইতিহাস, ইংরেজি এবং সাহিত্যের উপর একাডেমিক ক্লাস নেওয়া

**কে কি শিখল, এবং পরবর্তীতে কিভাবে শিখবে তার উপর প্রতিবেদন তৈরী করা

**সরাসরি সম্প্রচারমূলক ক্লাস নেয়, যার ফলে শিক্ষার্থীদের সাথে সরাসরি সংযুক্ত হতে পারে।

**অনুশীলন করার জন্য বিভিন্ন কুইজ এবং মডেল টেস্ট দেওয়া

**বিভিন্ন শিক্ষামুলক তথ্য ধারণ সমৃদ্ধ ব্লগ লিখা।

ভিডিও তৈরির পাশাপাশি আয়মানের কয়েকটি বই ও প্রকাশিত হয়েছে।

**নেভার স্টপ লার্নিং (ফেব্রুয়ারি,২০১৮)

**স্টুডেন্টস হ্যাকস – আয়মান সাদিক, সাদমান সাদিক (ফেব্রুয়ারি,২০১৯)

**ভাল্লাগে না – আয়মান সাদিক,অন্তিক মাহমুদ (ফেব্রুয়ারি,২০১৯)

খুব স্বল্প সময়েই তিনি পেয়েছেন অসংখ্য সম্মাননা।তার পাওয়া পুরস্কার সমূহ হলো-

**কুইন্স ইয়ং লিডার অ্যাওয়ার্ড ২০১৮

**ব্র্যাক ম্যানথান ডিজিটাল উদ্ভাবন পুরস্কার

**গ্লোমো পুরস্কার,

** বার্সেলোনা সামাজিক প্রভাবের জন্য সুইস দূতাবাস পুরস্কার

**ইয়ুথ এওয়ার্ড ২০১৬

**ডিওয়াইডিএফ ইওথ আইকন পুরস্কার

**বিযম্যাস্ট্রোস চ্যাম্পিয়ন **ব্রাণ্ডউইটজ’ ১৩ চ্যাম্পিয়ন

**ইউনিলিভার ফিউচার লিডার’স লিগ ২০১৬

**এমডব্লিউসি পুরস্কার

**বিশ্ব মোবাইল কনগ্রেসে গ্লোমো পুরস্কার।

ব্রিটেনের রাণী দ্বিতীয় এলিজাবেথের হাত থেকে ‘কুইন্স ইয়াং লিডারস অ্যাওয়ার্ড’ গ্রহণ করেছেন তিনি। লন্ডনের বাকিংহাম প্যালেসে এক জাকজমকপূর্ণ অনুষ্ঠানে বিজয়ীদের হাতে পুরস্কার তুলে দেন রাণী এলিজাবেথ।বাংলাদেশে তরুণ জনগোষ্ঠীর শিক্ষার সুযোগ উন্নয়নে অনন্য অবদানের জন্য ‘কুইন্স ইয়াং লিডার অ্যাওয়ার্ড’ পেয়েছেন আয়মান সাদিক। তিনি ‘টেন মিনিটস স্কুল’-এর প্রতিষ্ঠাতা।পুরস্কার গ্রহণের পর আয়মান সাদিক ফেসবুকের এক স্ট্যাটাসে লিখেছেন, ‘এই অর্জন সমগ্র বাংলাদেশের! একদম শুরু থেকেই সর্বপ্রকারের সহযোগিতা আর সমর্থন দিয়ে প্রতিনিয়ত ভরসা করে যাওয়ার জন্যে আইসিটি ডিভিশন আর রবিকে জানাই অসংখ্য ধন্যবাদ ও অশেষ কৃতজ্ঞতা!

আর তারই সাথে হৃদয়গ্রাহী ভালোবাসা জানাই সে সকল স্বপ্নবাজ ও উদ্যমী শিক্ষার্থীদেরকে যাদের ভালোবাসা, সমর্থন ও শুভকামনায় স্বপ্নপূরণের পথে আমাদের যাত্রাটা এতটা সহজ হয়েছে! তোমাদের দেওয়া অমূল্য ভালোবাসা আর সমর্থনের কিছুটা ফিরিয়ে দিতেই এ অর্জনের স্বীকৃতিটুকু উৎসর্গ করলাম তোমাদের প্রতি! তোমরাই টেন মিনিটস স্কুল, তোমরাই বাংলাদেশ!’প্রসঙ্গত, সম্প্রতি মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রভিত্তিক প্রভাবশালী সাময়িকী ফোর্বসের চলতি বছরে এশিয়ার সেরা ৩০ উদ্যোক্তার তালিকায়ও নাম এসেছে আয়মান সাদিকের।

 

Tarokaloy/18 February/Shaila

Previous ArticleNext Article