সাজগোজ

ত্বকের যত্নে আলুর অসাধারণ উপকারিতা ও ৭টি ব্যবহার। 

আলু আমাদের জনপ্রিয় খাদ্যের মধ্যে একটি। এতে অ্যান্টিঅক্সিডেন্টস, ভিটামিন সি, বি১ ,বি৩, বি৬ ও ম্যাগনেসিয়াম, পটাসিয়াম, এবং ফসফরাসের মত খনিজ পদার্থ রয়েছে। 
 
 
 
আলুর ফেসপ্যাকের উপকারিতা :  
 
এটি আপনার ত্বকের কালো দাগ, মার্কস, ব্লেমিশগুলি থেকে পরিত্রাণ পেতে সাহায্য করে। চোখের ফুলে থাকা ভাব কমাতে এবং বয়সের ছাপ পরা কমাতে সাহায্য করে। এতে অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট থাকে যা আপনার ত্বককে দূষণ এবং সূর্যের এক্সপোজার দ্বারা সৃষ্ট পরিবেশগত ক্ষতি থেকে রক্ষা করে। 
 


 
 

 

১. ত্বক ফর্সাকারি আলুর ফেসপ্যাক :  
 
৩ টেবিল চামচ আলুর রসের সঙ্গে ২ টেবিল চামচ মধু একসঙ্গে মিশিয়ে মুখে লাগিয়ে রাখুন ১০-১৫ মিনিট শুকিয়ে যাওয়া পর্যন্ত। 
মধু আপনার ত্বককে ময়শ্চারাইজিং করে। আলুর রস এসিডিক এবং এতে রয়েছে প্রাকৃতিক ত্বক ব্লিচিং এজেন্টস। যা আপনার ত্বককে উজ্জ্বল ও গ্লোয়িং করতে সাহায্য করে। 
 
 

২. গ্লোয়িং ত্বকের জন্য আলু ও লেবুর ফেস মাস্ক : 
 
আলুর রস, লেবুর রস ও সামান্য মধু একসঙ্গে মিশিয়ে ১৫ মিনিট মুখে ও গলায় লাগিয়ে রাখুন । এরপর ঠান্ডা পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। এটা আপনার ত্বকের অতিরিক্ত তেল সরাতে সাহায্য করে ও ধুলো জমে থাকা পোরস বা ছিদ্রগুলোকে খুলতে সাহায্য করে 
 
 

৩. অ্যাকনের জন্য আলু ও টমেটো ফেস মাস্ক :  
 
আলুর রসের সঙ্গে টমেটোর রস ও সামান্য মধু একসঙ্গে মিশিয়ে নিন। এরপর মুখে ও আক্রান্ত স্থানে লাগিয়ে রাখুন। এই মিশ্রণটা নিয়মিত ব্যবহার করুন যতদিন না অ্যাকনে চলে যায়। টমেটো এবং আলু অ্যান্টিঅক্সিডেন্টে সমৃদ্ধ যা আপনার ত্বক থেকে জীবাণু এবং ব্যাকটেরিয়াকে দূরে রাখে। ধুলো জমে থাকা পোরস গুলো খুলতে সাহায্য করে। 


সতর্কতা : 
টমেটো রস অত্যন্ত এসিডিক হয়, আপনার ত্বক শুকিয়ে যেতে পারে। যা প্রতিরোধ করতে ফেস মাস্কটিতে মধুর পরিমাণ বাড়িয়ে যোগ করুন। 

 

৪. পিগমেনটেশনের জন্য আলু ফেস প্যাক :  
 
আলুর রস, চালের গুড়ো, লেবুর রস ও সামান্য মধু একসঙ্গে মিশিয়ে ১৫-২০ মিনিট লাগিয়ে রাখুন। অপেক্ষা করুন শুকিয়ে যেতে এরপর ঠান্ডা পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। আলুর রস টান ও দাগ দূর করে এর সাথে চাল ত্বকের মৃত কোষগুলি তুলে ফেলতে সাহায্য করে ও মধু ত্বককে ময়শ্চারাইজ করে। 
 
 
 

৫. বলি রেখার জন্য আলু ও দুধের ফেস প্যাক : 

একটি আলু ছেঁচে নিন সাথে ২ চামচ কাঁচা দুধ ও ২ ৩ ফোটা গ্লিসারিন নিয়ে ভালো করে মিশিয়ে নিন । এরপর মুখে ও আক্রান্ত স্থানে ভালো ভাবে লাগিয়ে রাখুন ১০-১৫ মিনিট যতক্ষণ না পর্যন্ত শুকিয়ে যায়। এই ফেসপ্যাকটি ত্বকের বলি রেখা, ডার্ক সার্কেল দুর করতে সাহায্য করে। 
 

 

 
৬. আলু, শসা, লেবু ও হলুদের ফেসপ্যাক : 
 
আলুর রস, শসার রস, লেবুর রস ও সামান্য হলুদ নিয়ে ভালো করে মিশিয়ে নিন মিশিয়ে নিন। এরপর পুরো মুখে ভাল করে লাগিয়ে নিন শুকানো পর্যন্ত অপেক্ষা করুন। এরপর ভালো করে ঠান্ডা পানি দিয়ে মুখ ধুয়ে নিন। শসার রস ত্বককে শীতল করে ও টান রিমুভ করে এরই সাথে আলু ও লেবু রস ত্বকের অতিরিক্ত তেল দূর করে আর হলুদ ত্বককে উজ্জ্বল করে। 
 


 
 

৭. আলু, মধু ও অ্যালমন্ড অয়েল ফেস প্যাক : 
 
একটি আলু নিয়ে ছেঁচে নিন এর সাথে মধু ও অ্যালমন্ড অয়েল ভালো করে মিশিয়ে নিন। এরপর মিশ্রণটা ভালো করে মুখে লাগিয়ে নিন। শুকিয়ে গেলে ঠান্ডা পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। আলুতে আছে অ্যান্টিঅক্সিডেন্টস এবং বিটা ক্যারোটিন সমৃদ্ধ যে আপনার ত্বকের স্বাস্থ্য বৃদ্ধিতে সহায়তা করে। মধু এবং অ্যালমন্ড অয়েল ত্বক ময়শ্চারাইজ করে। ত্বককে করে গ্লোয়িং 
 
 
তারকালয়/২৬/১২/১৮/রুপা 

Previous ArticleNext Article