সাজগোজ

৩টি মেথির জাদুকরী হেয়ার মাস্ক !

আদিকাল হতে চুলের যত্নে প্রাকৃতিক উপায় হিসেবে মেথি কাজ করে আসছে। তাই মেথির সাথে আমরা কম বেশি সবাই পরিচিত। মেথি একটি উপকারী উপাদান,কিন্তু এর গুণাগুণ অনেকেরই অজানা। মেথিতে আছে নানান ঔষধী গুণ। এতে রয়েছে নানান অ্যান্টি-অক্সিডেন্ট যেমন- প্রোটিন, ভিটামিন সিআয়রণপটাসিয়ামনিকোটিনিক এসিড, লেসিথিন। আমাদের চুলের নানা সমস্যায় মেথির রয়েছে বিবিধ ব্যবহার। যেমন- কম বয়সে চুল পেকে যাওয়া থেকে রক্ষা পেতে, চুলের বৃদ্ধিতে , খুশকি দূরীকরসহ আরো অনেক ক্ষেত্রে মেথির ব্যবহার হয়ে থাকে।  
 

 

মেথি ও টক দই প্যাক  


 যা যা লাগবে : 

  • মেথি দানা ১/৪ কাপ অথবা
  • ২ টেবিল চামচ  টক দই
  • ১ কাপ  নারিকেল তেল/ আলমন্ড অয়েল/ অলিভ অয়েল( ম্যাসাজ এর জন্য) 

যেভাবে তৈরি করবেন :

  • প্রথমে ১/৪ কাপ মেথি দানা (অথবা ২ টেবিল চামচ) একটি পাত্রে নিয়ে পানি দিয়ে ধুয়ে নিন। তারপর সেই পাত্রে কিছু পরিমাণ পানিতে সারারাত মেথি ভিজিয়ে রাখুন।আগের রাতে ভিজিয়ে রাখা মেথি পাটায় অথবা ব্লেন্ডারে নিয়ে খুব ভালোভাবে পেস্ট করে নিন। পেস্ট করা মেথিতে এক কাপ টক দই নিয়ে খুব ভালো ভাবে মিশিয়ে নিন। এই মিশ্রণটি কম পক্ষে ২ থেকে ৩ ঘণ্টা রেখে দিন। চুলে তেল ম্যাসাজ করুন। নারিকেল তেল বা আপনার পছন্দনুযায়ী যে কোনো তেল নিতে পারেন। চুলে তেল দেয়ার আগে, তেলটা সামান্য গরম করে নিতে পারেন। আপনি চাইলে তেল ম্যাসাজ নাও করতে পারেন। তবে যাদের চুল অধিক শুষ্ক এবং চুলে গিট লেগে যাওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে, তার চুলে তেল দিয়ে নিন। এবার চুলে মেথি আর টক দইয়ের মাস্কটি আগা থেকে গোড়া পর্যন্ত খুব ভালোভাবে লাগিয়ে নিন মাস্কটি ৪০ থেকে ৫০ মিনিট রেখে শ্যাম্পু করে নিন। তারপর কন্ডিশনার লাগান। ভালো ফলাফল পেতে মাস্কটি মাসে ২বার লাগাতে পারেন।নিয়মিত ব্যবহারে চুল পড়া বন্ধ হবে। আগা ফাটা সমস্যা দূর হবে। চুলের ঘনত্ব বৃদ্ধি ও চুল স্বাস্থ্যোজ্জ্বল হবে। 
     

 


 
মেথি ও নারিকেল তেল 
 
যা যা লাগবে : 

  • মেথি ২ টেবিল চামচ 
  • নারিকেল তেল পরিমান মত  
     

যেভাবে তৈরি করবেন : 

  • এক টেবিল চামচ নারিকেল তেল নিন আপনার চুলের জন্য যতটুকু প্রয়োজন। তাতে দুই চা চামচ মেথি দানা বা মেথি গুঁড়ো দিন। নারিকেল তেল ফুটাতে থাকুন যতক্ষন পর্যন্ত না মেথি দানা লালচে বাদামি রঙ ধারণ না করে। লালচে বাদামি হয়ে যাওয়ার পর চুলা থেকে নামিয়ে নিন। মেথি তেল থেকে আলাদা করে নিন। তেল যখন হালকা গরম হবে তখন তা নিয়ে স্ক্যাল্পসহ পুরো চুলে আলতো করে লাগিয়ে নিন। সারা রাত রেখে পরদিন শ্যাম্পু করে, চুলে কন্ডিশনার দিন। এভাবে সপ্তাহে দুই বার এই তেলটি ব্যবহার করুন। নিয়মিত ব্যবহারে চুল পড়া বন্ধ হবে। চুলের গোড়া মজবুত হবে। আগের তুলনায় চুলের রুক্ষতা কমে, তাতে কোমলতা ফিরে আসবে ও খুশকি থেকে মুক্তি পাওয়া যাবে। 
     

 

 

মেথিমেহেদিআমলকি প্যাক  


যা যা লাগবে : 

  • ১/২ কাপ মেহেদি গুঁড়া বা বাটা মেহেদি ( চুলের সাইজ অনুযায়ী)
  • ১ টেবিল চামচ আমলকি পাউডার 
  • ১ টেবিল চামচ অলিভ অয়েল,  
  • ২ টেবিল চামচ টক দই। 

 
যেভাবে তৈরি করবেন : 

  • মেহেদি গুঁড়া বা বাটা মেহেদির সাথে ১ টেবিল চামচ অলিভ অয়েল, এবং ২ টেবিল চামচ টক দই ও ১ টেবিল চামচ আমলকি পাউডার মিশিয়ে প্যাক তৈরি করে নিন। এবার প্যাকটি সারারাত রেখে দিন। পরের দিন সকালে এই প্যাক মাথায় ভালো করে লাগিয়ে নিন। ২/৩ ঘন্টা পরে শ্যাম্পু করে ধুয়ে ফেলুন। এই হেয়ার প্যাকটি আপনার চুল থেকে খুশকি দূর করবে, সেই সাথে চুলের গোড়া মজবুত করে চুলকেও করে তুলবে স্বাস্থ্যোজ্জ্বল 
     
     

মেথির মাস্ক লাগানোর আগে অবশ্যই মনে রাখবেন চুল যেন পরিষ্কার থাকে। ময়লা চুলে ব্যবহার করলে কাজ করবে না। আর যদি মেথিতে আপনার এলার্জি থাকে তাহলে এই মাস্কটি ব্যবহার করবেন না। 
 
 
তারকালয়/১৭/১০/১৮/রুপা 

Previous ArticleNext Article