সাজগোজ

১২টি প্রয়োজনীয় মেকআপ ব্রাশের সঠিক ব্যবহার! 

মেকআপ করতে প্রথমেই জানতে হবে মেকআপ ব্রাশের সঠিক ব্যবহার। কেননা মেকআপ ব্রাশের সাহায্যে মেকআপ সুন্দর করে এপ্লাই করা যায় বা সুন্দর করে সাজা যায়। আপনি প্রফেশনাল মেকআপ আর্টিস্ট হলে অথবা ইউটিউব থেকে মেকআপ ভিডিও দেখে হয়তো মেকআপ ব্রাশের ব্যবহার জানেন। কিন্তু অনেকেই এর ব্যবহার সম্পর্কে জানেন না। তাই এর মেকআপ করতে চাইলেও এর ব্যবহার না জানার ফলে মেকআপ করতে পারেন না তাই আপনাদের সুবিধার্থে আজ কোন মেকআপ ব্রাশের ব্যবহার কিভাবে করবেন বুঝিয়ে দিব। 
 
 


 
১. ফাউন্ডেশন ব্রাশ  
 
ফাউন্ডেশন ব্রাশ হলো ক্রিম বা লিকুইড ফাউন্ডেশন ব্যবহার করার জন্য। ফাউন্ডেশন ব্রাশের উপর অল্প করে ফাউন্ডেশন নিয়ে এরপর মুখের সামনের দিক থেকেই আস্তে আস্তে এপ্লাই করতে হয়। মনে রাখবেন ব্রাশ দিয়ে ঘষতে যাবেন না। শুধু ব্লেন্ড করবেন। এটা দিয়ে চোখের নিচের কনসিলারও এপ্লাই করা হয়। 
 
 
 

২. বিউটি ব্লেন্ডার  
 
বিউটি ব্লেন্ডারের সাহায্যেও ফাউন্ডেশন এপ্লাই করা হয়। অনেকেই ব্রাশ দিয়ে কমফর্ট হয় না। সেক্ষেত্রে বিউটি ব্লেন্ডারটি ভিজিয়ে নিয়ে চেপে পানি হালকা ঝরিয়ে নিন। এরপর মুখের উপর অথবা ব্লেন্ডারের উপর ফাউন্ডেশন নিয়ে তা মুখে চেপে চেপে যাকে ডেব বলা হয় অর্থাৎ ডেব ডেব করে এপ্লাই করুন। এতে ফাউন্ডেশন স্মুদলি বসবে।  
 
 
 

৩. কাবুকি ব্রাশ 
 
বড় এই ব্রাশটি হচ্ছে কাবুকি ব্রাশ এর সাহায্য ব্রোঞ্জারস ও পাউডার সফটি এপ্লাই করা যায়। পাউডার অথবা ব্রোঞ্জারস নিয়ে পুরো মুখে ঘুরিয়ে ঘুরিয়ে হালকা ভাবে এপ্লাই করতে হয়। 
 
 
 

৪. পাউডার ব্রাশ 
 
এই লং ফ্লাফি ব্রাশটি হলো পাউডার ব্রাশ। এটি দিয়ে লুজপাওডার এপ্লাই করা হয়। মুখের চিকস এ ব্লাশ এপ্লাই করার জন্য ও ব্যবহার করা হয়। 
 
 
 

৫. এঙ্গেল ব্লাশ ব্রাশ 
 
চিকবোনস এ ব্লাশ ও কন্ট্যুরিং করার জন্য এই এঙ্গেল ব্লাশ ব্রাশটি ব্যবহার করা হয়।চিকবোনের উপর এঙ্গেল করে কন্ট্যুর ও ব্লাশ এপ্লাই করা হয়।
 
 

৬. কনসিলার ব্রাশ  
 
এই ছোট শেপ এর ব্রাশটির সাহায্য মুখের ব্লেমেশিস, বিভিন্ন স্পট ঢেকে দেয়া হয় কনসিলার ব্যবহার করে। এই কনসিলার ব্রাশ দিয়ে কালার কনসিলার নিয়ে মুখের কালার কালেক্টরিং করা হয়। এতে আপনার মুখের বিভিন্ন দাগ খুব সহজেই ঢেকে যায়। 
 
 
 
 
৭. অল অভার আইশ্যাডো ব্রাশ  
 
এই ব্রাশটি দিয়ে আইশ্যাডো এপ্লাই করা যায়। শুরুতে পাউডার অথবা ক্রিমি আইশ্যাডো এপ্লাই এর জন্য। 
 


 

৮. আইশ্যাডো ব্লেন্ডিং ব্রাশ  
 
আইশ্যাডো সুন্দর করে ব্লেন্ড করার জন্য এই ব্রাশটি ব্যবহার করা হয়। যে কোনো কালার ও গর্জিয়াস আই লুক ক্রিয়েট করতে এই ব্রাশটি ব্যবহার করা হয়। 
 
 
 

৯. স্মাড্জ ব্রাশ 
 
আপনি স্মোকি আই লুক এর নাম শুনেছেন নিশ্চয়ই। স্মোকি আই লুকের জন্য স্মাড্জ ব্রাশ ব্যবহার করা হয়। চোখের আউটার কর্নার ও ইনার কর্নার এ গাড় করে আইশ্যাডো ব্যবহার করতে হলে এই ব্রাশটি প্রয়োজন। 
 
 

 

 
১০. এঙ্গেল আই লাইনার ব্রাশ  
 
এই ব্রাশটি দিয়ে আই লাইনার এপ্লাই করতে পারবেন। সুন্দর করে চোখে এঙ্গেল করে টানা দিতে এই ব্রাশটি দারুন কাজ করে। এমনকি আইব্রো আর্ট করতে এই ব্রাশটি ব্যবহার করা হয়। 
 


  

১১. আইলেশ/আইব্রো কোম্ব ব্রাশ  
 
এই ব্রাশটি দিয়ে আইলেশ বা আইব্রো আচড়ে নিতে পারেন। আইব্রো শেপ করতে এই ব্রাশটি প্রয়োজন হয়। 
 
 

 

 
১২. ফ্যান ব্রাশ
 
 
অনেকেই ভাববেন এই ব্রাশ দিয়ে কি হবে। তাহলে বলে নেই এই ব্রাশটিও অপ্রয়োজনীয় নয়। এটি আপনার মুখের বাড়তি পাউডার ঝেড়ে ফেলতে সাহায্য করে। এমনকি এর মেইন কাজ হলো হাইলাইটার এপ্লাই করা। এটা সফট ভাবে হাইলাইট ও পাউডার এপ্লাই ও ব্যবহার করা হয়। 
 
 
 
তারকালয়/২৬/১২/১৮/রুপা 

Previous ArticleNext Article