Uncategorized, সাজগোজ

রূপচর্চায় -টক দই

ত্বকের যত্নের জন্য হোক অথবা চুলের যত্নে, ন্যাচারাল উপায় থেকে বেস্ট ফলোফল অন্য কোথাও পাওয়া সম্ভব নয়। প্রাচীন কালের মানুষগণ তাদের রূপচর্চা নিয়ে বিশেষ যত্নবান ছিলেন। আর তাদের অনুসন্ধান কৃত আয়ুর্বেদিক উপায় সমূহ বর্তমান যুগের লাইফ সভোর।তাদের ব্যবহারকৃত আয়ুর্বেদিক উপাদানের মধ্যে প্রধান উপাদান ছিল টকদই। কারণ টকদই হচ্ছে একের ভিতর সব।

Tarokaloy_skin_care_with_yogurt

তাহলে আজকে আমরা জানবো রূপচর্চায় টক দইয়ের উপকারিতা

মাস্ক হিসেবে টকদই:

টক দইয়ের ফেসমাস্ক ব্যবহার করলে ফেসিয়াল করার কোনো প্রয়োজন হবে না ।এটি ত্বককে গভীর থেকে পরিষ্কার করে, লোমকূপকে ছোট করে আনতে সাহায্য করে।

Tarokaloy_skin_care_with_yogurt

• ড্রাই স্কিন এর জন্য টকদই :-

১ চা-চামচ টক দই, ১ চা-চামচের চার ভাগের এক ভাগ পরিমাণ লেবুর রস, ১ চা-চামচ অ্যালোভেরা জেল ও ১ চামচ মধু মিশিয়ে নিন। পুরো মুখে সমানভাবে লাগিয়ে নিয়ে অন্তত ২০-৩০ মিনিট অপেক্ষা করুন। ঠান্ডা পানিতে মুখ পরিষ্কার করে নিন।

• ওইলি স্কিন এর জন্য টকদই :-

২ চা-চামচ টক দই, ২ চা-চামচ বেসন। পুরো মুখ,হাত,পায়ে সমানভাবে লাগিয়ে নিয়ে অন্তত ২০-৩০ মিনিট অপেক্ষা করুন। হালকা কুসুম গরম পানিতে পরিষ্কার করে নিন।সপ্তাহে অন্তত ৩ থেকে ৪ দিন লাগান। আপনি নিজেই নিজেকে চিনতে পারবেন না।স্কিন গ্লোইয়িং এবং চক্চকে করবে।

• সানটান দূর করার জন্য :-

২ চা-চামচ টক দই, ১ চা-চামচ গোলাপজল, ১ চা-চামচ মুলদানি মাটি ভালভাবে মিশিয়ে মুখে লাগিয়ে নিয়ে অন্তত ২০-৩০ মিনিট অপেক্ষা করুন।হালকা কুসুম গরম পানিতে পরিষ্কার করে নিন।এটি সূর্যের UV-রে থেকে স্কিনকে প্রোটেকশন করবে।

• একনি,প্রন স্কিন এর জন্য :

২ চা-চামচ টক দই, ১ চা-চামচ হলুদ গুঁড়ো, ১ চা-চামচ অ্যালোভেরা জেল ভালভাবে মিশিয়ে মুখে লাগিয়ে নিয়ে অন্তত ২০-৩০ মিনিট অপেক্ষা করুন। হালকা কুসুম গরম পানিতে পরিষ্কার করে নিন।এটি মুখের একনি,প্রন দূর করে স্কিনকে দাগ্মুক্ত করতে সাহায্য করবে।

Tarokaloy_hair_care_with_yogurt

• চুলের যত্নে টকদই

চুলের মসৃণতা বজায় রাখতে:-

৪ চা-চামচ টক দই, ২ চা-চামচ নারকেল তেল, ২ চা-চামচ অ্যালোভেরা জেল,১ চা চামচ মেথি গুড়া ভালভাবে মিশিয়ে চুলে লাগিয়ে নিয়ে অন্তত ৩০-৪০ মিনিট অপেক্ষা করুন। ঠান্ডা পানিতে পরিষ্কার করে শ্যাম্পু করে নিন। এটি আপনার চুলকে শাইন ও রুক্ষতা থেকে মুক্তি দিবে।

চুলের গ্রোথ বৃদ্ধি করতে:-

চুলের গ্রোথ বৃদ্ধি অথবা চুল দ্রুত লম্বা হওয়ার জন্য টকদই এর উপকারিতা শেষ নেই। সে জন্য ৪ চামচ টক দইয়ের সাথে , তিন চামচ অলিভ অয়েল,এবং একটি ডিম নিয়ে একটি বাটিতে করে ভালো ভাবে তিনটি উপাদান মিশিয়ে নিন। এবং এই প্যাকটি লাগিয়ে রাখুন ৩০ মিনিটের জন্য। অবশ্যই একটি পাত্রে গরম পানি নিয়ে তাওয়াল ভিজিয়ে ,তাওয়ালের পানি ঝরিয়ে, সেটি মাথায় পেচিয়ে রাখুন এতে করে ,মাথার রক্ত চলাচল বৃদ্ধি পাবে যা চুলের বৃদ্ধিতে খুবই উপকারী। ৪৫ মিনিট পর মাইল্ড শ্যাম্পু দিয়ে ধুয়ে ফেলুন।

তাহলে বুঝতেই পরলেন , টকদই আসলেই একের ভিতর সব। শুধু যে স্কিন আর চুলের যত্নে জন্য টকদই টা মোটেও নয়,রান্নার কাজেই কিন্তু টকদই এর গুণের শেষ নেই। আশা করি আজকের প্রতিবেদন থেকে টকদই এর ব্যবহার সম্পর্কে যথেষ্ঠ তত্ত্ব অনুসন্ধান করা হয়েছে।

Previous ArticleNext Article