Uncategorized, সেলিব্রিটি বার্তা

বিচ্ছেদের পর নতুন বিয়ের প্রস্তাব এলো ফারিয়ার জীবনে

বিচ্ছেদের পরপরই একের পর এক বিয়ের প্রস্তাব পাচ্ছেন রূপে-গুণে অনন্যা ছোট পর্দার অভিনেত্রী শবনম ফারিয়া। টিভি সিরিয়াল ‘ফ্যামিলি ক্রাইসিস’ ও ‘দেবী’ চলচ্চিত্রে দুর্দান্ত অভিনয় করে ভক্তদের মনে ঠাঁই করে নেয়া এ অভিনেত্রীর কাছে ডিভোর্স বিষয়টি কোনো ‘ক্রাইসিস’ নয় বরং এটিকে ইতিবাচকভাবেই দেখছেন তিনি।

Tarokaloy_shabnam_faria

ভালোবেসে বিয়ের এক বছর ৯ মাসের মাথায় স্বামী হারুন অর রশীদ অপুর সঙ্গে বিচ্ছেদের খবর আসে শবনম ফারিয়ার।
গেলো ২৭ নভেম্বর আনুষ্ঠানিকভাবে বিচ্ছেদ পেপারে সই করেন এই দম্পতি। বিচ্ছেদের পরপরই ফেসবুকে এক যৌথ বিবৃতিতে এই দম্পতি জানিয়েছিলেন, ‘যে সুখের জন্য আলাদা হলাম, সেই সুখ যেন আমরা খুঁজে পাই’।

Tarokaloy_shabnam_faria

এদিকে অপুর সঙ্গে বিচ্ছেদের পরই একের পর এক বিয়ের প্রস্তাব পাচ্ছেন শবনম ফারিয়া। এরইমধ্যে নতুন লুকে ধরা দিয়েছেন তিনি। ডিভোর্সের পর ফেসবুক থেকে সরে গেলেও ইনস্টাগ্রামে এখনো সরব আছেন এ অভিনেত্রী। সেখানেই ফারিয়া লিখেছেন- ‘আপনারা শুভ স্বাধীনতা দিবস ফারিয়া বলেও শুভেচ্ছা জানাতে পারেন’।

২০১৮ সালের ফেব্রুয়ারিতে হারুনের সঙ্গে আংটি বদল হয় ফারিয়ার। ২০১৯ সালের ১ ফেব্রুয়ারি জমকালো আয়োজনে বিয়ে করেছিলেন তারা। শবনম ফারিয়ার বিচ্ছেদের খবরে তাকে বিয়ে করার জন্য প্রস্তাবের লাইন লেগে গেছে। অনেকেই প্রস্তাব দিয়ে বলছেন, ‘আমাকেই বিয়ে করো। তোমার জন্য অপেক্ষা করছি।’ কেউ বলছেন, ‘যদি দ্বিতীয় বিয়ে করতে চাও তবে আমিই তোমাকে বিয়ে করবো।’

জীবনের নানান সময়ে উত্থান পতনের জন্য হাতে গুনে প্রায় ১২ বার আত্মহত্যা করার কথা ভেবেছিলেন এই সময়ের জনপ্রিয় অভিনেত্রী ও মডেল শবনম ফারিয়া। তিনি এক ফেসবুক স্ট্যাটাসে এ তথ্য শেয়ার করেছিলেন সেইসঙ্গে তিনি উল্লেখ করেছিলেন কেন! ও কোন ঘটনার প্রেক্ষিতে ওই ধরণের চিন্তা করেছিলেন। এবং সেই ফেসবুক স্ট্যাটাসে ফারিয়া লিখেছিলেন, ‘শুনতে খুব সহজ শোনালেও যিনি বিষয়টার মধ্য দিয়ে যায় সেই জানে এইটা নিয়ে স্বাভাবিক জীবন যাপন কতটা কঠিন! আমার প্রথম ডিপ্রেশন (বিষন্নতা) শুরু হয় ২০১৫ সালে, একটা “সামান্য” ব্রেকআপ্রের। যদিও এখন সামান্য বলছি, তখন বিষয়টা মোটেও সামান্য ছিল না।

Previous ArticleNext Article