বিনোদন, সেলিব্রিটি বার্তা

ধর্মের টানে অভিনয় ছেড়েছেন যেসব তারকা

বাংলাদেশের বেশ কয়েকজন তারকা রয়েছেন যারা নিজের ধর্মের জন্য অভিনয় জীবনকে চিরবিদায় করেছেন। ধর্মের টানে অভিনয় ছাড়ার ঘটনা নতুন নয়। ক্যারিয়ারের তুঙ্গে থাকা অবস্থায় শোবিজ অঙ্গন থেকে বিদায় নিয়েছেন অনেক তারকাশিল্পীই। তারপর থেকে এখন পর্যন্ত ধর্মকর্ম নিয়েই ব্যস্ত আছেন তারা। বাংলাদেশের এমনই কজন তারকাশিল্পী কারা জেনে নিন,

Tarokaloy_bangladeshi_celebs

শাবানা: বাংলাদেশের কিংবদন্তি চিত্রনায়িকা শাবানা। ৪০ বছরের অভিনয় জীবনে শাবানা তিন শতাধিক ছবিতে অভিনয় করেছেন। অসামান্য অভিনয়ের স্বীকৃতি হিসেবে ১১ বার জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারও পেয়েছেন গুণী এই অভিনেত্রী। কিন্তু ২০০০ সালে জনপ্রিয়তার তুঙ্গে থাকা অবস্থায় হঠাৎ চলচ্চিত্র থেকে বিদায় জানান শাবানা। পাড়ি জমান যুক্তরাষ্ট্রে। স্বামী ও তিন সন্তান নিয়ে বর্তমানে সেখানেই বসবাস করছেন তিনি। কিন্তু কি কারণে বিদায় নিয়েছেন, তা তখন জানা যায়নি। পরবর্তীতে জানা যায়, শুধু অভিনয় থেকে বিদায় নেওয়াই নয়, রীতিমতো ‘তওবা’ও করেছেন তিনি। আর মন দিয়েছেন ধর্মকর্মে।

Tarokaloy_shabana

সুজানা জাফর: ২০০১ সালে মডেলিং এর মাধ্যমে মিডিয়ায় যাত্রা শুরু করেন সুজানা জাফর। ২০০৩ সালে লাক্স ফটোসুন্দরী খেতাব পান তিনি। অসংখ্য বিজ্ঞাপন, মিউজিক ভিডিও, নাটকে কাজ করে সুনাম কুড়িয়েছেন জনপ্রিয় অভিনেত্রী সুজানা জাফর। এরপর ২০১৮ সালের নভেম্বরে ওমরাহ পালন করেন তিনি। এরপর থেকেই মিডিয়াকে ‘গুডবাই’ জানান। তার সঙ্গে যোগাযোগ করে পরবর্তীতে জানা যায়, ধর্মের জন্যই অভিনয় জগত ছেড়েছেন তিনি। বর্তমানে নিজের বুটিক্স ব্যবসায় ব্যস্ত আছেন সুজানা।

Tarokaloy_sujana_zafor

এ্যানি খান: করোনাকালীন সময়ে অভিনয় থেকে বিদায় নিয়েছেন জনপ্রিয় মডেল, উপস্থাপক ও অভিনেত্রী এ্যানি খান। গত বছর জুনে দীর্ঘ ২৩ বছরের অভিনয় ক্যারিয়ারে ইতি টানেন তিনি। সেসময় তিনি জানান, নিজেকে অন্যভাবে খুঁজে পেয়েছি। জীবনে বড় ধরনের পরিবর্তন এসেছে। অনেকেই এ ছুটি শেষ হওয়ার প্রহর গুণেছেন। আর আমি তা কাজে লাগিয়েছি ইবাদত বন্দেগীর মাধ্যমে। প্রতিনিয়ত মহান আল্লাহকে ডেকেছি। নামাজ আদায় করছি। আল্লাহ চাইলে কি না পারেন। আমি আল্লাহর রাস্তায় হাঁটছি। এরপর শোবিজ অঙ্গন থেকে বিদায় নেওয়ার ঘোষণা দেন এ্যানি খান।

Tarokaloy_annie_khan

হ্যাপি: বাংলাদেশের ক্রিকেটার রুবেলের বিরুদ্ধে ধর্ষণের অভিযোগ এনে আলোচনায় এসেছিলেন মডেল অভিনেত্রী নাজনীন আক্তার হ্যাপি। আর ২০১৩ সালে ‘কিছু আশা কিছু ভালোবাসা’ ছবির সুবাদে অভিনয়ের খাতায় নাম লেখান তিনি। এরপর হ্যাপি কাজ করেছেন বেশ কিছু ছবি ও বিজ্ঞাপনে। ২০১৭ সালে এই অভিনেত্রী ঘোষণা দেন অভিনয় ছাড়ার। শুধু তাই নয়, তিনি ‘আমাতুল্লাহ’ হিসেবে নতুন নামও গ্রহণ করেন। তাকে নিয়ে মাকতাবাতুল আজহার প্রকাশনী থেকে প্রকাশ হয় একটি বইও। সেখানে তিনি বলেছেন, ‘নতুন শিশুর মতো আমার জন্ম হয়েছে। এখন আমার আগের জীবনের সঙ্গে কোনো সম্পর্ক নেই।’

Previous ArticleNext Article