Uncategorized, রেসিপি

দুধ চিতই পিঠার রেসিপি

পিঠা মানেই আমেজ , বাঙালির খাবার ঐতিহ্যর মধ্যে , পিঠা তার জায়গা করে নিয়েছে বহু বছর আগে থেকেই, বিয়ে হোক বা কোনো উৎসব গ্রামের বাড়িতে পিঠা থাকতেই হবে,এখন শুধু গ্রামে নয় বরং শহরে রয়েছে পিঠার বিপুল চাহিদা। ভিন্ন ঋতুতে ভিন্ন ভিন্ন পিঠার সম্ভার। অনেক জায়গাতে পিঠার মেলাও বসে,নানান জায়গা থেকে মানুষ পিঠা খেতে চলে আসে মেলার স্টল গুলোতে,শীত কালে এই মেলা গুলো দেখা যায় বেশির ভাগ সময়ই।

আর শীত কালের মজার একটি পিঠা হলো দুধ চিতই পিঠা, এই শীতে সকাল সকাল দুধ চিতই বানিয়ে পরিবারের সবাইকে নিয়ে উপভোগ করার মজাই অন্নরকম। তাহলে দেরি না করে আজকে জেনে নিন দুধ চিতই তৈরির করার উপকরণ এবং প্রস্তুত প্রণালী।

Tarokaloy_dudh_chitoi_pitha

চিতই পিঠা তৈরি উপকরণ:

*৩ কাপ আতপ চাল

*লবণ

প্রণালী: চাল ২ থেকে ৩ ঘণ্টা ভিজিয়ে রেখে তারপর মিহি করে বেটে সামান্য লবন দিয়ে ১ ঘণ্টা রেখে দিতে হবে। এরপর মিশ্রণে পরিমান মতো কুসুম গরম পানি দিয়ে গোলা তৈরি করুন। খেয়াল রাখতে হবে গোলা যেন খুব ঘন কিংবা পাতলা না হয়। লোহার কড়াই কিংবা চিতই পিঠার জন্য মাটির তৈরি তাওয়া বা খোলা গরম করে তাতে সামান্য সরিষা কিংবা সয়াবিন তেল মেখে নিন এরপর বড় চামচের এক চামচ গোলা পিঠার খোলায় দিয়ে ঢেকে দিন। এরপর ঢাকনায় সামান্য পানি ছিটিয়ে দিন, ৪ থেকে ৫ মিনিট পর পিঠা তুলে ফেলুন। দুধ চিতই পিঠা তৈরি উপকরণ:

Tarokaloy_dudh_chitoi_pitha

* ২.৫ কাপ খেজুরের গুড়

* ২ লিটার দুধ

* ২-৩টি দারুচিনি

* ২টি এলাচ

* ৩ কাপ পানি

* কিসমিস ইচ্ছামত

প্রণালী: খেজুরের গুড় পানিতে মিশিয়ে চুলায় গরমের জন্য দিতে হবে। মিশ্রণটি ফুটে উঠলে এলাচ,দারুচিনি,কিসমিস দিয়ে নামিয়ে ফেলুন। ঠাণ্ডা হলে দুধ মিশিয়ে সিরা তৈরি করুন (গরম অবস্থায় গুড়ের মিশ্রণটি দুধে দিয়া যাবে না, কারণ গুড় মেশালে দুধ নষ্ট হয়ে যাবার সম্ভবনা থাকে)। এরপর সিরা আবার চুলায় দিন। ২ লিটার দুধ ঘন হয়ে ১ লিটার হলে গরম অবস্থায় পিঠা সিরায় ভেজান।

৫ থেকে ৬ ঘণ্টা পর আপনার ইচ্ছে হলে এতে কিছু বাদাম কুচি দিয়ে পরিবেশন করুন মজাদার মজার দই চিতই পিঠা।

Previous ArticleNext Article