Uncategorized, রেসিপি

ট্রেডিশনাল খাসির পায়া রেসিপি

পায়া এবং নেহারি দুইটাই কিন্তু অসাধারণ মজার একটি খাবার। কিন্তু পায়া আর নেহারি কে অনেকে একই মনে করেন। কিন্তু এক মনে করা যাবে না কারণ দুইটা স্বাদ যেমন ভিন্নতর আবার তৈরি তেও অনেক পার্থক্য রয়েছে।
পায়া রান্না করতে ২/৩ দিন আগে থেকে একটা মেন্টাল সেটআপ অথবা প্রস্তুতি নিতে হবে বলে ভাবছেন?কেননা আগে তো মানুষের জীবন যাত্রা এত সহজ ছিল না ,এমনটা ভাবই স্বাভাবিক । কিন্তু বর্তমান আধুনিক যুগ, ই যুগে প্রেশার কুকার হয়ে, একই রান্নায় সময় লাগে ২/২.৫ ঘন্টা। তারকালয়ের প্রতিবেদনের মাধ্যমে এখনি মুহূর্তের মধ্যে এই রেসিপিটি জেনে বানিয়ে নিতে পারেন। আজ আপনাদের সাথে তুলে ধরা হচ্ছে ট্রেডিশনাল খাসির পায়ার অথেন্টিক রেসিপিটি। রেসিপিটি খাসির পা দিয়ে অথবা গরুর পায়া দিয়েও তৈরী করতে পারেন।

Tarokaloy_easy_recipe

পায়া তৈরী করতে লাগছে –
• খাসির ১০ টি পা
• ৩ টি তেজ পাতা
• ২ টুকরো (আনুমানিক ১০ সেঃমিঃ) দারুচিনি
•২ টি বড় এলাচ
•১০/১২ টি কালো গোল মরিচ
•৫/৬ টি লবঙ্গ
•ছোটো এলাচ ৪/৫ টি
•লবণ ১ চা চামুচ
•মরিচের গুঁড়ি ০.৫ চা চামুচ
• চিমটি পরিমাণ হলুদের গুঁড়ি
•০.৫ চা চামুচ ধনে গুঁড়ি
• আদা বাটা ১ চা চামুচ
•রসুন বাটা ০.২৫ চা চামুচ
•১ কাপ পেঁয়াজ
•৪/৫ টি কাঁচা মরিচ
•রান্নার তেল ০.২৫ কাপ
•পানি ৬ কাপ

পায়া বাগার দিতে
•রান্নার তেল ০.২৫ কাপ
•পেঁয়াজ কুচি ০.২৫ কাপ
•রসুন কুচি ১ টেবিল চামুচ
•আদা কুচি ০.২৫ কাপ
•শুকনো মরিচ ৩/৪ টি
•গরম মসলার গুঁড়ি ১ চা চামুচ
•ভাজা জিরার গুঁড়ি ০.৫ চা চামুচ

প্রথমে পায়া তৈরির প্রস্তুত প্রণালী :

১/ খাসির মাংসের ১০ টি পায়া নিয়ে তা ভালো ভাবে নিন।

২/এর পর একটি প্রেসার কুকার নিয়ে এতে পানি ঝরিয়ে নিয়া পায়া গুলো সাথে ৩ টি তেজ পাতা এবং ২ টুকরো দারুচিনি ও ২ টি বড় এলাচ নিয়ে হালকা হাতে মাখিয়ে নিন।

৩/তারপর ১০-১২ টি কালো গোল মরিচ সাথে ৫/৬ টি লবঙ্গ
এবং আবারো ছোটো এলাচ ৪/৫ টি দিয়ে দিন

৪/ এবং লবণ ১ চা চামুচ, মরিচের গুঁড়ি ০.৫ চা চামুচ,
এক চিমটি পরিমাণ হলুদের গুঁড়ি ও ,০.৫ চা চামুচ ধনে গুঁড়ি দিয়ে আদা বাটা ১ চা চামুচ
,সাথে রসুন বাটা ০.২৫ চা চামুচ
ভালো করে ফালি করা ১ কাপ পেঁয়াজ দিতে আবারো একটি মাখিয়ে নিন।
৫/ অবশেষে ৪/৫ টি কাঁচা মরিচ, এবং রান্নার তেল ০.২৫ কাপ ও পানি ৬ কাপ দিয়ে একটু রান্নার খুন্টি দিতে হালকা হাতে মাখিয়ে প্রেসার কুকারে ঢাকনা দিয়ে ৩৫ মিনিট অপেক্ষা করুন , এ পর্যায়ে চুলার আঁচ বাড়িয়ে রাখবেন। এবং এই ৩৫ মিনিটে মধ্যে একটু পর পর ঢাকনা খুলে একটু নেড়ে নিতে হবে।

অন্যদিকে পায়ার বাগার তৈরি জন্য প্রস্তুত প্রণালী:
১/একটি রান্নার পেনে ০.২০ কাপ তেল গরম করে নিন,এবং এতে পেঁয়াজ কুচি দিয়ে দিন ০.২০ কাপ এবং রসুন কুচি ১ টেবিল চামুচ দিয়ে একটু নাড়া দিয়ে ভেজে নিন।

২/ পেঁয়াজ একটু ভেজে আসলে ৩-৪ টি শুকনো মরিচ সাথে অ্যাড করুন আদা কুচি ০.২৫ কাপ। এর পর এসব ভালো ভাবে ভেজে নিয়ে নিন।

৩/তার পর দুকাপ পায়ার ঝোল দিয়ে, ঢাকনা দিয়ে দিন দুই মিনিট রাখুন। দুই মিনিট পর সম্পূর্ণ পায়া ঢেলে দিন বাগারের মসলাতে।

৪/ ৫ মিনিট হয়ে আসলে গরম মসলার গুঁড়ি ১ চা চামুচ দিন এর পর ভাজা জিরার গুঁড়ি আধা চা চামুচ দিয়ে একটু নেড়ে দিন। আবারো পাঁচ মিনিট ধরে চুলায় রাখতে হবে পায়াটি। এর পর চুলাটি অফ করে দিয়ে ১০ মিনিট সেভাবেই রেখে দিতে হবে কোনো ঢাকনা খোলা যাবে না।

১০ মিনিট পর গরম গরম মজাদার পায়া রেডী।
সাথে সাথে পরিবেশন করুন এবং উপভোগ করুন আপনার আপনজনের সাথে।

Previous ArticleNext Article