বিনোদন, সেলিব্রিটি বার্তা

দর্শকদের স্থম্ভিত করা টড ফিলিপস এর চমকপ্রদ ছবি, “জোঁকার”

জোকার টড ফিলিপস পরিচালিত একটি ২০১৯ আমেরিকান সাইকোলজিকাল থ্রিলার চলচ্চিত্র।চলচ্চিত্রটিতে জোকার ফিনিক্স জোকারের চরিত্রে অভিনয়। ১৯৮১ নির্মিত হয়েছিল মূল গল্প ,ছবিটি আর্থার ফ্লেককে অনুসরণ করে, ব্যর্থ স্ট্যান্ড-আপ কৌতুক অভিনেতা হিসেবে। চলচ্চিত্রটি পরিচালনা ও প্রযোজনা করেছেন টড ফিলিপস ।

জোকার কমিক বইয়ে তাকে একজন অপরাধমূলক পরিকল্পনাকারী হিসেবে চিত্রিত করা হয়েছে। প্রথমে এক ধর্ষকামী, বিকৃতমনস্ক, ব্যাধিগ্রস্থ ব্যক্তি হিসেবে তার আত্মপ্রকাশ ঘটলেও ১৯৫০ দশকের শেষ দিকে কমিক্স কোড অথরিটির সুপারিশে তাকে এক নির্বোধ ফন্দীবাজের রূপ দেওয়া হয়।

সাত দশকেরও বেশি সময় ধরে বিনোদন জগতে বিচরণ ‘দ্য ক্লাউন প্রিন্স অফ ক্রাইমে’র। রূপালি জগতেও জোকারের মনস্তত্বকে তুলে ধরে পরপারে অমর হয়ে আছেন হিথ লেজারের মতো তারকা।এবং এখন ফিনিক্স তার প্রতি চাপ তুলে ধরেছে ,এই চলচ্চিত্রটি করার জন্য ফিনিক্স নিজেকে ২ বছরের মতো ঘর বন্দী করে রেখেছিল যেনো সে তার চরিত্রে মানুষিক রোগীর আচরণ তুলে ধরতে পারে। শুধু যে আচরণের পরিবর্তন তা নয় তাকে তার শারীরিক অবস্থার অবনতি করতে হয়েছে। প্রতিদিন ৫০০ ক্যালোরিস কমাতে হয়েছে এই চলচ্চিত্রের জন্য।

জোকার চলচ্চিত্রে অভিনয়ে কাজ অনেকেই করছেন। ২০১৯ সালে জোকার চলচ্চিত্রটির জন্যে যাদের কস্ট করা হয়েছে তারা হচ্ছে :

১: জোয়াকিন ফিনিক্স ( জোকার /আর্থার ফ্লেক)

২: রবার্ট ডি নিরো (মারে ফ্র্যাঙ্কলিনের)

৩: জাজি বিটজ (সোফি ডুমন্ড)

৪: ফ্রান্সেস কনরোয় (পেনি ফ্লেক) ইত্যাদি।

কাহিনী (সংক্ষেপ) : আর্থার ছোট বেলা থেকে মানুষিক ভাবে তার মায়ের কাছ থেকে নির্যাতিত হয়ে আসছিল যার ফলে তিনি নিজেকে অবহেলিত ভাবতো । তিনি কোনো কাজ সঠিক ভাবে সম্পাদন করতে পারতো না ।তার শারীরিক ও মানসিক অবস্থা জন্যে তিনি সব ক্ষেত্রে পিছিয়ে ছিলেন। তিনি পড়াশুনা করতে পছন্দ করতেন না কেননা তিনি কমেডিয়ান হওয়ার স্বপ্ন দেখতেন। আর্থার এমন একটি ব্যাধি থেকে ভুগছেন যা তাকে অনুপযুক্ত সময়ে হাসতে থাকে যার কারণে তার গলি একটি গাং তাকে আক্রমণ করে এবং এর পর থেকে তিনি বন্দুক নিয়ে ঘুরে ফেরা করা যা তিনি তার সহকর্মী র‌্যান্ডাল দিয়েছিল। তিনি সোফি নামের একটি মেয়ের সাথে ডেটিং ও করতো। আর্থার বাচ্চাদের হাসপাতালে বিনোদন দেওয়ার কাজ করতো। একদিন সেখানে কাজ করা কালীন বাচ্চাদের সামনে তার বন্দুকটি পকেট থেকে পড়ে যায়,যার ফলে আর্থারকে বহিষ্কার করা হয়। সাবওয়েতে তিনি বাড়ি ফেরার সময় তিনজন মাতাল তাকে প্রহার করেছিল কেননা তিনি ক্রমাগত হেসে যাচ্ছিল তার ক্লাউন মেকআপ নিয়ে। তারা আর্থারকে নির্মম ভাবে আঘাত করছিল যার ফলে তিনি সহ্য করতে না পেরে পকেট থেকে বন্দুক বের করে তাদের হত্যা করে। সে জন্যে গথমের ধনী ব্যক্তিদের বিরুদ্ধে বিক্ষোভ শুরু হয়, বিক্ষোভকারীরা আর্থারের ইমেজে ক্লাউন মাস্ক দান করার মাধ্যমে বিক্ষোভ করে। এর তিনি বাড়ি ফেরে এসে টেলিভিশন দিক লক্ষ্য করে দেখেন টক শো হোস্ট মারে ফ্র্যাঙ্কলিন তার শোতে রুটিন থেকে ক্লিপ দেখিয়ে আর্থারকে বিদ্রূপ করেছে কেননা আর্থার তার কমেডি শোটিতে অনিয়ন্ত্রিতভাবে হাসছিলেন এবং তাঁর রসিকতা দিতে অসুবিধা হচ্ছিলো। ঠিক তখন তিনি লক্ষ্য করেন, আর্থার থমাসকে পেনির লেখা একটি চিঠি ,যেখনে অভিযোগ করেছিলেন যে তিনি থমাসের অবৈধ পুত্র, এবং সত্য গোপন করার জন্য তার মাকে মারধর করা হতো।তিনি সত্য উদঘাটন করার জন্যে থমাস ওয়েন কাছে যায় এবং সত্য জানার পর তার মাকে হত্যা করে কেননা তিনি জানতে পারে যে তার মা তাকে পালক সন্তান হিসেবে নিয়েছিলেন তার প্রেমিকাকে ক্ষতি করার জন্য এবং সে থেকে তার ভয়ংকর যাত্রা শুরু হয়।

জোয়াকিন ফিনিক্স এর চোখ ধাঁধানো অভিনয় দর্শদের মুগ্ধ করেছে এবং বুঝিয়ে দিয়েছে অভিনয় জগৎ বড়ই বিচিত্র।

 

তারকালয়/২১/১০/১৯/রিয়া

Previous ArticleNext Article