বিনোদন, সেলিব্রিটি বার্তা

জিজ্ঞাসাবাদে চাঞ্চল্যকর তথ্য উদ্ধার পরীমনির

বর্তমান সময়ের আলোচিত–সমালোচিত চিত্রনায়িকা পরীমনিকে আটক করে র‍্যাব। গত বুধবার বিকেল ৪টার দিকে রাজধানীর বনানীতে পরীমনির বিলাসবহুল ফ্ল্যাটে অভিযান চালায় র‍্যাব। অভিযান শুরুর পরই বাড়িতে মিনিবারের সন্ধান পাওয়া যায়। বাসা থেকে বিপুল পরিমাণ ওয়াইন, আইস, এলএসডি ও মাদক সেবনের সরঞ্জামাদি উদ্ধার করা হয়। তারপর পরীমনিকে আটক করে নিয়ে যাওয়া হয় র‌্যাবের সদর দপ্তরে।

This image has an empty alt attribute; its file name is whatsapp-image-2021-08-04-at-8-36-1628088081045-1.jpg
Tarokaloy_porimoni_arrested_by_RAB

পরীমনির বাসায় অভিযান চালানোর পরে রাজ মাল্টিমিডিয়ার কর্ণধার নজরুল ইসলাম রাজের কার্যালয়ে অভিযান চালায় র‍্যাব এবং তাকে আটক করা হয়। রাজ একজন পরিচালক ও প্রযোজক। পরীমনির ক্যারিয়ারের প্রথম থেকে রাজের সাথে তার ভালো সম্পর্ক। রাজের কার্যালয়ে অভিযান চালানোর পর সেখান থেকে বিপুল পরিমাণ মদ ও ইয়াবা উদ্ধার করা হয়। কম্পিউটারসহ কিছু ডিভাইস এবং তাঁর মোবাইল ফোনও জব্দ করা হয়।

Tarokaloy_porimoni_and_raj

প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদ ও তদন্ত ভিত্তিতে ৫ আগস্ট বৃহস্পতিবার বিকালে র‌্যাবের আইন ও গণমাধ্যম শাখার পরিচালক খন্দকার আল মঈন ব্রিফিংয়ে বলেন, ” পরীমনি এই পর্যন্ত ৩০ টি সিনেমা ও ৫ বা ৬টি টিভিসি (টিভি বিজ্ঞাপনে) অভিনয় করেছেন। ২০১৪ সাথে তিনি প্রথম একটি ছবির মাধ্যমে চিত্র জগতে অন্তর্ভুক্ত হন। পিরোজপুর থেকে ঢাকায় এসে চিত্র জগতে দৃঢ় অবস্থানের পিছনে নজরুল ইসলাম রাজের গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা ছিলো।

Tarokaloy_porimoni

২০১৬ সাল থেকে পরীমনি অ্যালকোহলে আসক্ত। তিনি নিয়মিত অ্যালকোহল সেবন করতেন। চাহিদা মেটানোর জন্য পরীমনি তার ফ্ল্যাটে অবৈধ মিনি বার স্থাপন করেছিলেন যেখানে পার্টি বা ডিজে পার্টির আয়োজন করতেন। ফ্ল্যাট থেকে বিভিন্ন ব্র্যান্ডের মদ উদ্ধার করা হয়েছে। ১২০টি আগের ব্যবহার করা বোতল ও ১৯টি বিদেশি মদের বোতল উদ্ধার করা হয়েছে যার মধ্যে উচ্চমাত্রার এলএসডি, আইসসহ মাদকদ্রব্য পাওয়া যায়। তার কাছ থেকে একটি মেয়াদোত্তীর্ণ মাদক লাইসেন্স পাওয়া গেছে।

This image has an empty alt attribute; its file name is b-20210804144651-3.jpg
Tarokaloy_porimoni’s_house_founded_ foreign_liquor

এসব মাদক তিনি অবৈধভাবে বাড়িতে রেখেছিলেন। এই মিনিবারে নজরুল ইসলাম রাজসহ বিভিন্ন ব্যক্তিদের যাতায়াত ছিলো। সেখানে রাজ অ্যালকোহল সাপ্লাই করতো। নজরুল ইসলাম রাজের সহযোগিতায় ১০ থেকে ১২ জনের গ্রুপ গড়ে তোলা হয়েছে যারা পার্টির আয়োজন করতো। পরীমনি ও রাজ এই চক্র ডিজে পার্টির আয়োজনের মাধ্যমে বিপুল অর্থ উপার্জন করত। এসব অর্থ তাঁরা বিভিন্ন ব্যবসার কাজে লাগাতেন।”

Tarokaloy_porimoni_arrested

প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদ ও তদন্ত সাপেক্ষে চিত্রনায়িকা পরীমনির বিরুদ্ধে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে মামলা হয় এবং রাজের বিরুদ্ধে মাদক ও পর্নোগ্রাফি আইনে মামলা হয়। বৃহস্পতিবার সন্ধ্যার দিকে তাঁদের বিরুদ্ধে বনানী থানায় পৃথকভাবে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে মামলা করে। ওই মামলায় সাত দিনের রিমান্ডের আবেদন জানিয়ে তাঁদের ঢাকার চিফ মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে হাজির করা হয়। শুনানি শেষে আদালত তাঁদের চার দিন করে রিমান্ড মঞ্জুর করেন। পরীমনির মাদক মামলার ধারায় যে অপরাধ এটি যদি প্রমাণিত হয় তাহলে ৬ মাস থেকে ৫ বছর পর্যন্ত শাস্তি হতে পারে বলে জানা গেছে।

Previous ArticleNext Article