Uncategorized, সাজগোজ

চুলের যত্নে ডিম ব্যবহারের পদ্ধতি

ঘন কালো ও মসৃণ চুল কে না চায়। কিন্তু এই শীতে মাথার ত্বক রুক্ষ হয়ে যায়। খুশকি বাড়ে। তা ছাড়া চুল পড়ার প্রবণতা তো অনেকেরই আছে। তবে এ থেকে মুক্তির উপায়ও আছে। সপ্তাহে ব্যবহার করতে পারেন ডিমের প্যাক।

Tarokaloy_skin_care_with_egg

ভারতের জীবনধারা ও স্বাস্থ্যবিষয়ক ওয়েবসাইট বোল্ডস্কাই এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে, দ্রুত চুল লম্বা করার অব্যর্থ ওষুধ ডিম। ডিমে থাকে প্রোটিন, যা চুলের স্বাস্থ্য ভালো রাখতে সাহায্য করে। মাথার ত্বকের পুষ্টি বাড়িয়ে নতুন চুল গজাতে সাহায্য করে। চুল ঘন করতে ডিমের জুরি মেলা ভার। ডিমের কুসুমের মধ্যে থাকা বায়োটিন চুলকে হাইড্রেট রাখতে সাহায্য করে। প্রাকৃতিকভাবে চুলকে ময়েশ্চারাইজ করে। আসুন, চুলে কীভাবে ডিম ব্যবহার করবেন, তা জেনে নিই—

Tarokaloy_skin_care_with_egg

ডিম ও অলিভ অয়েলের প্যাক

একটা পাত্রে দুটি ডিম ও দুই টেবিল চামচ এক্সট্রা ভার্জিন অলিভ অয়েল নিন। দুটি উপকরণ খুব ভালো করে মেশান। চুলে আর স্ক্যাল্পে লাগিয়ে ৪৫ মিনিট অপেক্ষা করুন। তারপর শ্যাম্পু দিয়ে চুল ধুয়ে ফেলুন।

Tarokaloy_skin_care_with_egg

ডিম, দুধ ও মধুর প্যাক

চুল মজবুত করার জন্য দুধ খুব উপকারী। দুধে থাকা প্রোটিন চুল মজবুত করে। চুলে পুষ্টি জোগায়। মধু চুলকে ময়েশ্চারাইজ করে। একটি পাত্রে দুটি ডিম, দুই চামচ মধু ও দুই টেবিল চামচ দুধ নিয়ে ভালো করে মেশান। চুলে লাগিয়ে ৩০ মিনিট রেখে ধুয়ে ফেলুন। সপ্তাহে দুদিন এটি করতে পারেন।

Tarokaloy_skin_care_with_egg

ডিম, মধু ও লেবুর প্যাক

ডিমের সঙ্গে ভালো করে মিশিয়ে নিন লেবু ও মধু। প্যাকটি লাগিয়ে ৩০ মিনিট অপেক্ষা করুন। তারপর শ্যাম্পু দিয়ে চুল ধুয়ে নিন। সবচেয়ে ভালো ফল পেতে প্যাক লাগানোর আগের দিন রাতে চুলে হালকা গরম তেল ম্যাসাজ করে নিন।

Tarokaloy_skin_care_with_egg

ডিম ও দইয়ের প্যাক

দইয়ের সঙ্গে ডিম মিশিয়ে ভালো করে মিশিয়ে নিন। এবার চুলের গোড়ায় খুব ভালো করে লাগান প্যাকটি। ৩০ মিনিট রেখে শ্যাম্পু দিয়ে চুল ধুয়ে নিন।

তবে মনে রাখবেন, ডিম দিয়ে তৈরি প্যাক ব্যবহারের পর সব সময় ঠাণ্ডা পানি দিয়ে চুল ধোবেন। গরম বা হালকা গরম পানি ব্যবহার করবেন না।

Previous ArticleNext Article