Uncategorized, সেলিব্রিটি বার্তা

চলচ্চিত্র ছেড়ে ধর্ম কর্মে মনোযোগী চম্পা

বাংলা চলচ্চিত্রের দর্শকপ্রিয় একজন অভিনেত্রী গুলশান আরা আক্তার চম্পা। সাদা কালো পর্দা থেকে শুরু হয়েছে তার যাত্রা একের পর এক হিট চলচ্চিত্র প্রদান করেছেন দর্শকের জন্য এই অভিনেত্রী। কয়েক প্রজন্ম তিনি পার করে এখন কিংবদন্তি অভিনেত্রী খেতাব প্রাপ্ত হলে। গেলো বছর আগেও তিনি কাজে যথাযথ মনোযোগী ছিলেন। নিয়মিত কাজ করে গিয়েছেন।

Tarokaloy_actress_champa

কিন্তু জানা যায় বেশ কিছুদিন যাবত মিডিয়া থেকে নিজেকে আড়াল করে রেখেছেন এই অভিনেত্রী । চলমান মহামারী সংকটে চলচ্চিত্রের কাজ থেকে খানিকটা দূরে আছেন তিনি।কাজের জন্য তাকে যোগাযোগ করতে চাইলেও তেমন ইতিবাচক সাড়া পাওয়া যায়নি। তাহলে কি তিনি আর কাজ করতে ইচ্ছুক নন!! কিন্তু কি এমন হয়েছে ,যার ফলে এত বড় সিদ্ধান্ত?মূলত মিডিয়া ছেড়ে এখন তিনি ধর্মের কাজে মনোযোগী। এ সময়টাতে পরিবার ও ধর্মকর্মে মন দিয়েছেন ‘পদ্মা নদীর মাঝি’ খ্যাত অভিনেত্রী।

Tarokaloy_actress_champa

চম্পা বলেন, ‘করোনা সংক্রমণের কারণে দীর্ঘদিন চলচ্চিত্রে কাজ করিনি। এখন আবারও সংক্রমণ বাড়ছে। তাই আপাতত কাজ করছি না। বাসায় সময় কাটাচ্ছি। ধর্মকর্ম আর ইবাদত-বন্দেগি করছি। তাছাড়া আধুনিক এই সময়ে মোবাইলের মাধ্যমে আত্মীয়-স্বজনদের সঙ্গে কথা বলি, সবার খোঁজখবর নিয়ে সময় কেটে যায়।’

চলচ্চিত্র থেকে কিছু সময়ের বিরতি নিলেও একেবারে ছেড়ে দেননি বলে তিনি জানিয়েছেন, ‘চলচ্চিত্র এক বারে যে ছেড়ে দিয়েছি তা নয়। মহামারী এই পরিস্থিতি স্বাভাবিক হলে, ভালো গল্পের সিনেমা পেলে আবারও চলচ্চিত্রে অভিনয় করার ইচ্ছা আছে।’ সেটা সম্পূর্ণ আমার মন মানসিকতার উপর নির্ভর করছে। এখনও চূড়ান্তত

Tarokaloy_actress_champa

প্রসঙ্গত, গত বছরের ডিসেম্বরে মুক্তি পেয়েছে চম্পা অভিনীত সর্বশেষ সিনেমা ‘বিশ্বসুন্দরী’। বিশ্বসুন্দরী তে তার সাথে কাজ করেছেন অনেকেই ,সে সাথে প্রধান চরিত্রে অভিনয়ের জন্য ছিলেন অভিনেত্রী পরিমনি। এক সময় বড় পর্দায় দাপিয়ে বেড়ানো এই অভিনেত্রী অসংখ্য সুপারহিট সিনেমা উপহার দিয়েছেন। আশির দশকের মাঝামাঝি সময় থেকে নব্বই দশকের প্রথমার্ধ পর্যন্ত বাণিজ্যিক চলচ্চিত্রের এক নম্বর নায়িকা ছিলেন চম্পা। কাজের স্বীকৃতিস্বরূপ তিনবার জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার পেয়েছেন তিনি। এছাড়াও ‘শেরেবাংলা পদক’ পেয়েছেন এই অভিনেত্রী।

Previous ArticleNext Article