Uncategorized, রেসিপি

কই মাছের পাতুরি রেসিপি

মাছের দেশ বাংলাদেশ, নদীমাতৃক দেশ হওয়ায় হরেক রকম মাছের সাধ নিয়া যায়। আমাদের দেশের গ্রামে গঞ্জে বসবাসকারী বেশির ভাগ প্রিয় একটি খাবার মাছ। মাছের নানা ধরনের রান্না আইটেম যদি বাসায় বসে বানিয়ে খাওয়া যায়,তাহলে তো কথাই নাই
আজকে কিছুটা ভিন্নকিছু নিয়ে তারকালয়ের আয়োজন
কই মাছের পাতুরি রান্না বাংলাদেশের অনেক পুরানো রান্না। গ্রাম অঞ্চলে করা হয়। গরম গরম ভাতের সাথে কই মাছের পাতুরি খাওয়ার মজাই আলাদা।আজই আপনি বাড়িতে ট্রাই করে দেখতে পারেন মজাদার এই আইটেম।

Tarokaloy_koi_macher_paturi

কই মাছের পাতুরি রান্নার পদ্ধতি
উপকরণ
১)কই মাছ ৪টি
২)২টি কাঁচা মরিচসহ সরষে ৩)বাটা ১ টেবিল-চামচ
৪)নারকেল বাটা ১ টেবিল-চামচ
৫)রসুন ছেচা ১ চা-চামচ
৬)পেঁয়াজ ১ টেবিল-চামচ
৭)মরিচ গুঁড়া ১ চা চামচ
৮)হলুদ গুঁড়া আধা চা-চামচ
৯)জিরা বাটা আধা চা-চামচ
১০)কাঁচা মরিচ ৪টি
১১)লাউ পাতা বড় ৪টি
১২)লবণ স্বাদমতো
১৩)সরষের তেল প্রয়োজনমতো
সুতা পরিমাণ মতো

Tarokaloy_koi_macher_paturi

রান্নার প্রণালী
১. প্রথমে কই মাছ কেটে ভালো করে ধুয়ে পরিষ্কার করে নিতে হবে।

২. লাউ পাতা ও সুতা ছাড়া তেলসহ সব মসলা একসঙ্গে মাখিয়ে কই মাছ ১৫ মিনিট ম্যারিনেট করে রাখতে হবে।

৩. ৪টি বড় লাউ পাতায় একটি করে মাছ ও একটি করে কাঁচা মরিচ দিয়ে ভালো করে মুড়িয়ে সুতা দিয়ে পেঁচিয়ে বেঁধে নিতে হবে।

৪. প্রতিটি মাছ বাঁধা হলে সসপ্যানে পানি দিয়ে ভাপে বসান।

৫. ১৫ মিনিট পর নামিয়ে সুতা খুলে গরম ভাতের সঙ্গে পরিবেশন করা যায় মজাদার কই মাছের পাতুরি।

Previous ArticleNext Article